৩২ জেলায় সমাবেশ করবে বিএনপি ব্যাপক প্রস্তুতি - বর্ণমালা টেলিভিশন

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ৩২ জেলায় সমাবেশ করবে বিএনপি। শুরু হবে ২২ ডিসেম্বর থেকে। প্রতিটি সমাবেশে বিপুল লোকসমাগমের প্রস্তুতি রয়েছে। সিনিয়র নেতাদের নিয়ে টিমও গঠিত হয়েছে। তৃণমূলকে উজ্জীবিত করতে কাল থেকেই কেন্দ্রীয় নেতাদের জেলায় অবস্থান করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিএনপি সূত্রে জানা গেছে এসব তথ্য।

প্রথম দিন টাঙ্গাইল, হবিগঞ্জ, যশোর, বগুড়া, দিনাজপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরে সমাবেশ হবে। পর্যায়ক্রমে ২৪ ডিসেম্বর গাজীপুর, জয়পুরহাট, জামালপুর, নোয়াখালী, ভোলা, পটুয়াখালী ও গাইবান্ধায়; ২৬ ডিসেম্বর চাঁদপুর, নরসিংদী, লালমনিরহাট, ঝিনাইদহ, পাবনা ও মুন্সিগঞ্জ; ২৮ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জ, ফেনী, নওগাঁ, সুনামগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও মেহেরপুর এবং ৩০ ডিসেম্বর কক্সবাজার, কিশোরগঞ্জ, ঢাকা, ঠাকুরগাঁও, সিরাজগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর ও খাগড়াছড়ি জেলা

শহরে হবে সমাবেশ। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার শরীরের প্যারামিটারগুলো নিচের দিকে। হিমোগ্লোবিন কমের দিকে। দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের বাইরে বিদেশে চিকিৎসার জন্য নেওয়ার বিষয়ে চিকিৎসকরা বারবার বলছেন। আমরা ইতোমধ্যে সারা দেশে মানববন্ধন, সমাবেশ, গণ-অনশন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি পালন করেছি। সমাবেশের পর আরও কর্মসূচি দেওয়া হবে।

জানা যায়, টাঙ্গাইল জেলার সমাবেশে সিনিয়র নেতাদের মধ্যে থাকবেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, হবিগঞ্জে ড. মোশাররফ হোসেন ও জয়নাল আবেদীন ফারুক, যশোরে মির্জা আব্বাস ও মশিউর রহমান, বগুড়ায় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী

ও আবুল খায়ের ভুঁইয়া। গাজীপুরে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, জয়পুরহাটে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জামালপুরে নজরুল ইসলাম খান ও হাবিব উন নবী খান সোহেল, নোয়াখালীতে আব্দুল্লাহ আল নোমান, বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ভোলায় মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার, গাইবান্ধায় শামছুজ্জামান দুদু ও হারুন অর রশিদ। চাঁদপুরে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন, নরসিংদীতে ড. আব্দুল মঈন খান ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, লালমনিরহাটে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, ঝিনাইদহে নিতাই রায় চৌধুরী ও মশিউর রহমান, পাবনায়

শওকত মাহমুদ ও হাবিব উন নবী খান সোহেল, মুন্সিগঞ্জে অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী ও হাবিব উন নবী খান সোহেল। মানিকগঞ্জে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও আব্দুস সালাম, ফেনীতে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আব্দুল আউয়াল মিন্টু ও জয়নুল আবেদীন ফারুক, নওগাঁয় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও মিজানুর রহমান মিনু, সুনামগঞ্জে আব্দুল্লাহ আল নোমান ও অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, নারায়ণগঞ্জে মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার, মেহেরপুরে অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও হারুন অর রশিদ, পটুয়াখালীতে এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার। কক্সবাজারে নজরুল ইসলাম খান ও মিজানুর রহমান মিনু, কিশোরগঞ্জে মির্জা আব্বাস ও আব্দুস

সালাম, ঢাকায় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও আমান উল্লাহ আমান, ঠাকুরগাঁওয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সিরাজগঞ্জে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও মনিরুল হক চৌধুরী, লক্ষ্মীপুরে ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর ও আবুল খায়ের ভূঁইয়া এবং খাগড়াছড়িতে থাকবেন শামছুজ্জামান দুদু ও অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন। বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ বলেন, সর্বস্তরের জনগণের উপস্থিতিতে সমাবেশ সফল করতে সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। এসব সমাবেশ মহাসমাবেশে রূপ নেবে।

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ৩২ জেলায় সমাবেশ করবে বিএনপি। শুরু হবে ২২ ডিসেম্বর থেকে। প্রতিটি সমাবেশে বিপুল লোকসমাগমের প্রস্তুতি রয়েছে। সিনিয়র নেতাদের নিয়ে টিমও গঠিত হয়েছে। তৃণমূলকে উজ্জীবিত করতে কাল থেকেই কেন্দ্রীয় নেতাদের জেলায় অবস্থান করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিএনপি সূত্রে জানা গেছে এসব তথ্য।

প্রথম দিন টাঙ্গাইল, হবিগঞ্জ, যশোর, বগুড়া, দিনাজপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরে সমাবেশ হবে। পর্যায়ক্রমে ২৪ ডিসেম্বর গাজীপুর, জয়পুরহাট, জামালপুর, নোয়াখালী, ভোলা, পটুয়াখালী ও গাইবান্ধায়; ২৬ ডিসেম্বর চাঁদপুর, নরসিংদী, লালমনিরহাট, ঝিনাইদহ, পাবনা ও মুন্সিগঞ্জ; ২৮ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জ, ফেনী, নওগাঁ, সুনামগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও মেহেরপুর এবং ৩০ ডিসেম্বর কক্সবাজার, কিশোরগঞ্জ, ঢাকা, ঠাকুরগাঁও, সিরাজগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর ও খাগড়াছড়ি জেলা

শহরে হবে সমাবেশ। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার শরীরের প্যারামিটারগুলো নিচের দিকে। হিমোগ্লোবিন কমের দিকে। দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের বাইরে বিদেশে চিকিৎসার জন্য নেওয়ার বিষয়ে চিকিৎসকরা বারবার বলছেন। আমরা ইতোমধ্যে সারা দেশে মানববন্ধন, সমাবেশ, গণ-অনশন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি পালন করেছি। সমাবেশের পর আরও কর্মসূচি দেওয়া হবে।

জানা যায়, টাঙ্গাইল জেলার সমাবেশে সিনিয়র নেতাদের মধ্যে থাকবেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, হবিগঞ্জে ড. মোশাররফ হোসেন ও জয়নাল আবেদীন ফারুক, যশোরে মির্জা আব্বাস ও মশিউর রহমান, বগুড়ায় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী

ও আবুল খায়ের ভুঁইয়া। গাজীপুরে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, জয়পুরহাটে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জামালপুরে নজরুল ইসলাম খান ও হাবিব উন নবী খান সোহেল, নোয়াখালীতে আব্দুল্লাহ আল নোমান, বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ভোলায় মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার, গাইবান্ধায় শামছুজ্জামান দুদু ও হারুন অর রশিদ। চাঁদপুরে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন, নরসিংদীতে ড. আব্দুল মঈন খান ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, লালমনিরহাটে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, ঝিনাইদহে নিতাই রায় চৌধুরী ও মশিউর রহমান, পাবনায়

শওকত মাহমুদ ও হাবিব উন নবী খান সোহেল, মুন্সিগঞ্জে অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী ও হাবিব উন নবী খান সোহেল। মানিকগঞ্জে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও আব্দুস সালাম, ফেনীতে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আব্দুল আউয়াল মিন্টু ও জয়নুল আবেদীন ফারুক, নওগাঁয় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও মিজানুর রহমান মিনু, সুনামগঞ্জে আব্দুল্লাহ আল নোমান ও অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, নারায়ণগঞ্জে মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার, মেহেরপুরে অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও হারুন অর রশিদ, পটুয়াখালীতে এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার। কক্সবাজারে নজরুল ইসলাম খান ও মিজানুর রহমান মিনু, কিশোরগঞ্জে মির্জা আব্বাস ও আব্দুস

সালাম, ঢাকায় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও আমান উল্লাহ আমান, ঠাকুরগাঁওয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সিরাজগঞ্জে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও মনিরুল হক চৌধুরী, লক্ষ্মীপুরে ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর ও আবুল খায়ের ভূঁইয়া এবং খাগড়াছড়িতে থাকবেন শামছুজ্জামান দুদু ও অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন। বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ বলেন, সর্বস্তরের জনগণের উপস্থিতিতে সমাবেশ সফল করতে সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। এসব সমাবেশ মহাসমাবেশে রূপ নেবে।

৩২ জেলায় সমাবেশ করবে বিএনপি ব্যাপক প্রস্তুতি

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৬ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৮:৫৬ 110 ভিউ
খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ৩২ জেলায় সমাবেশ করবে বিএনপি। শুরু হবে ২২ ডিসেম্বর থেকে। প্রতিটি সমাবেশে বিপুল লোকসমাগমের প্রস্তুতি রয়েছে। সিনিয়র নেতাদের নিয়ে টিমও গঠিত হয়েছে। তৃণমূলকে উজ্জীবিত করতে কাল থেকেই কেন্দ্রীয় নেতাদের জেলায় অবস্থান করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিএনপি সূত্রে জানা গেছে এসব তথ্য। প্রথম দিন টাঙ্গাইল, হবিগঞ্জ, যশোর, বগুড়া, দিনাজপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরে সমাবেশ হবে। পর্যায়ক্রমে ২৪ ডিসেম্বর গাজীপুর, জয়পুরহাট, জামালপুর, নোয়াখালী, ভোলা, পটুয়াখালী ও গাইবান্ধায়; ২৬ ডিসেম্বর চাঁদপুর, নরসিংদী, লালমনিরহাট, ঝিনাইদহ, পাবনা ও মুন্সিগঞ্জ; ২৮ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জ, ফেনী, নওগাঁ, সুনামগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও মেহেরপুর এবং ৩০ ডিসেম্বর কক্সবাজার, কিশোরগঞ্জ, ঢাকা, ঠাকুরগাঁও, সিরাজগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর ও খাগড়াছড়ি জেলা

শহরে হবে সমাবেশ। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার শরীরের প্যারামিটারগুলো নিচের দিকে। হিমোগ্লোবিন কমের দিকে। দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের বাইরে বিদেশে চিকিৎসার জন্য নেওয়ার বিষয়ে চিকিৎসকরা বারবার বলছেন। আমরা ইতোমধ্যে সারা দেশে মানববন্ধন, সমাবেশ, গণ-অনশন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি পালন করেছি। সমাবেশের পর আরও কর্মসূচি দেওয়া হবে। জানা যায়, টাঙ্গাইল জেলার সমাবেশে সিনিয়র নেতাদের মধ্যে থাকবেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, হবিগঞ্জে ড. মোশাররফ হোসেন ও জয়নাল আবেদীন ফারুক, যশোরে মির্জা আব্বাস ও মশিউর রহমান, বগুড়ায় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী

ও আবুল খায়ের ভুঁইয়া। গাজীপুরে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, জয়পুরহাটে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জামালপুরে নজরুল ইসলাম খান ও হাবিব উন নবী খান সোহেল, নোয়াখালীতে আব্দুল্লাহ আল নোমান, বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ভোলায় মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার, গাইবান্ধায় শামছুজ্জামান দুদু ও হারুন অর রশিদ। চাঁদপুরে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন, নরসিংদীতে ড. আব্দুল মঈন খান ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, লালমনিরহাটে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, ঝিনাইদহে নিতাই রায় চৌধুরী ও মশিউর রহমান, পাবনায়

শওকত মাহমুদ ও হাবিব উন নবী খান সোহেল, মুন্সিগঞ্জে অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী ও হাবিব উন নবী খান সোহেল। মানিকগঞ্জে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও আব্দুস সালাম, ফেনীতে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আব্দুল আউয়াল মিন্টু ও জয়নুল আবেদীন ফারুক, নওগাঁয় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও মিজানুর রহমান মিনু, সুনামগঞ্জে আব্দুল্লাহ আল নোমান ও অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, নারায়ণগঞ্জে মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার, মেহেরপুরে অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও হারুন অর রশিদ, পটুয়াখালীতে এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার। কক্সবাজারে নজরুল ইসলাম খান ও মিজানুর রহমান মিনু, কিশোরগঞ্জে মির্জা আব্বাস ও আব্দুস

সালাম, ঢাকায় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও আমান উল্লাহ আমান, ঠাকুরগাঁওয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সিরাজগঞ্জে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও মনিরুল হক চৌধুরী, লক্ষ্মীপুরে ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর ও আবুল খায়ের ভূঁইয়া এবং খাগড়াছড়িতে থাকবেন শামছুজ্জামান দুদু ও অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন। বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ বলেন, সর্বস্তরের জনগণের উপস্থিতিতে সমাবেশ সফল করতে সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। এসব সমাবেশ মহাসমাবেশে রূপ নেবে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ