ঢাকা, Wednesday 22 September 2021

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

হেপাটাইটিস ‘সি’ শনাক্ত করায় নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী

প্রকাশিত : 12:38 PM, 6 October 2020 Tuesday
66 বার পঠিত

রাছেল রানা | বগুডা

চলতি বছরের নোবেল পুরস্কার ঘোষণা সোমবার থেকে শুরু হয়েছে। সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে হেপাটাইটিস ‘সি’ ভাইরাস শনাক্ত করার স্বীকৃতি হিসেবে চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার পেলেন দুই মার্কিন ও এক ব্রিটিশ বিজ্ঞানী। তাদের গবেষণা রক্তে জন্ম নেয়া হেপাটাইটিসের অন্যতম উৎস ব্যাখ্যা করতে সহায়তা করবে। খবর সিএনএন ও গার্ডিয়ানের।

পুরস্কারপ্রাপ্ত তিন চিকিৎসা বিজ্ঞানী হলেন, যুক্তরাষ্ট্রের চার্লস এম রাইস ও হার্ভে জে অলটার এবং ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত মাইকেল হাউটন। নোবেল কমিটি বলছে, এই তিন বিজ্ঞানীর যৌথ গবেষণার ফলে রক্তের নানা পরীক্ষা এবং নতুন ওষুধ আবিষ্কার সম্ভব হবে। যা লাখো মানুষের প্রাণ বাঁচাবে। নোবেলবিজয়ীরা স্বীকৃতির পাশাপাশি অর্থপুরস্কার

হিসেবে এক কোটি সুইডিশ ক্রোনা (বাংলাদেশী টাকায় ৯ কোটি ৫১ লাখ টাকা) পাবেন। নোবেল ঘোষণার পর এখন পর্যন্ত বিজয়ীদের মধ্যে হার্ভে জে অলটার এবং চার্লস এম রাইসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পেরেছেন নোবেল কমিটির সচিব থমাস পার্লম্যান। তিনি বলেন, আমি হয়তো তাদের ঘুম থেকে ডেকে তুলেছি। কারণ কয়েকবার ফোন করার পর যোগাযোগ সম্ভব হয়েছে। তবে শোনার পর তারা খুব অবাক ও খুশি হয়েছেন।

বরাবরের মতোই এ বছরও চিকিৎসায় নোবেলের জন্য মনোনীত ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান বা সংক্ষিপ্ত তালিকা সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। অতীতের ধারাবাহিকতায় সব নথিপত্র অত্যন্ত গোপনীয়তার সঙ্গে রেখে তা জনসাধারণের ধরাছোঁয়ার বাইরে রাখা হয়েছে। মঙ্গলবার পদার্থবিজ্ঞানে, বুধবার রসায়নে,

বৃহস্পতিবার সাহিত্যে, শুক্রবার শান্তি এবং ১২ অক্টোবর অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কারজয়ী নাম ঘোষণা করা হবে। পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী এবার নোবেল পুরস্কারজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হলেও সেখানেও করোনা মহামারীর প্রভাব পড়েছে। অন্য বছর যেমন ডিসেম্বরে জমকালো আয়োজনে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়, এবার তেমনটা হচ্ছে না। আগামী বছরের মধ্যেই করোনা মহামারী শেষ হবে বলে আশা করছে নোবেল কমিটি। আর তাই ২০২১ সালের নোবেলবিজয়ীদের সঙ্গে চলতি বছরের বিজয়ীদের পুরস্কারপ্রাপ্তি উদ্যাপনের আমন্ত্রণ জানানো হবে।

১৯০১ সাল থেকে গত বছর পর্যন্ত চিকিৎসা বিজ্ঞানে ১১০ জনকে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয়। এদের ১২ জন নারী। চিকিৎসাবিজ্ঞানে পুরস্কারজয়ীদের মধ্যে সবচেয়ে কম বয়সী ফ্রেডেরিক জি

ব্যানটিং। ১৯২৩ সালে পুরস্কার জয়ের সময় তার বয়স ছিল ৩২ বছর। আর ১৯৬৬ সালে ৮৭ বছরে পুরস্কারটি পান পেটন রউস। তিনি সবচেয়ে বেশি বয়সে চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পান।

১৮৯৫ সালের নবেম্বর মাসে আলফ্রেড নোবেল নিজের মোট উপার্জনের ৯৪ শতাংশ (৩ কোটি ১০ লাখ সুইডিশ ক্রোনা) দিয়ে তার উইলের মাধ্যমে নোবেল পুরস্কার প্রবর্তন করেন। এই বিপুল অর্থ দিয়েই শুরু হয় পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন, চিকিৎসাবিজ্ঞান, সাহিত্য ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান। ১৯৬৮ সালে তালিকায় যুক্ত হয় অর্থনীতি। পুরস্কার ঘোষণার আগেই মৃত্যুবরণ করেছিলেন আলফ্রেড নোবেল। আইনসভার অনুমোদন শেষে তার উইল অনুযায়ী নোবেল ফাউন্ডেশন গঠিত হয়। তাদের ওপর দায়িত্ব বর্তায় আলফ্রেড

নোবেলের রেখে যাওয়া অর্থের সার্বিক তত্ত্বাবধান করা এবং নোবেল পুরস্কারের সার্বিক ব্যবস্থাপনা করা। বিজয়ী নির্বাচনের দায়িত্ব সুইডিশ একাডেমি আর নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটিকে ভাগ করে দেয়া হয়।

ডিনামাইট আবিষ্কারক আলফ্রেড নোবেলের রেখে যাওয়া অর্থের বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ১৮০ কোটি ক্রোনার সমান। এতদিন এ নোবেল পুরস্কারের অর্থমূল্য ছিল ৯০ লাখ সুইডিশ ক্রোনা। এ বছর মর্যাদাপূর্ণ নোবেল পুরস্কারজয়ীদের গত বছরের তুলনায় ১০ লাখ ক্রোনা বা প্রায় এক লাখ ১০ হাজার ডলার বেশি দেয়া হবে বলে সম্প্রতি ঘোষণা দিয়েছেন নোবেল ফাউন্ডেশনের প্রধান লারস হেইকেনস্টেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ডোনেট বাংলাদেশ'কে জানাতে ই-মেইল করুন- donetbd2010@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

ডোনেট বাংলাদেশ'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© 2021 সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। ডোনেট বাংলাদেশ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT