সদ্য বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা চঞ্চল এমপির পোষ্য গুন্ডা বিপাশের ইতিবৃত্ত - বর্ণমালা টেলিভিশন

বিপাশ মহেশপুর উপজেলার ছাত্রলীগের সভাপতি ও ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি । সে অনুপ্রবেশকারী হাইব্রিড আওয়ামী লীগ নেতা চঞ্চল এমপির পেটোয়া বাহিনীর প্রধান। বিপাশ এলাকায় মাদকসম্রাট নামেও খ্যাত।সে সভাপতি পদ পাওয়ার পর থেকে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। এলাকায় চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, মাদকদ্রব্য চোরাচালানে বিপাশ সিদ্ধহস্ত। শুধু তাই নয় তার অনৈতিক প্রস্তাবে কেউ অসম্মতি জানালে তার উপর নেমে আসে নির্মম অত্যাচার। সে ও তার পেটোয়া বাহিনী মিলেই হাসপাতালের ডাঃ নাফিজেক লাঞ্ছিত করে। কয়কদিন আাগে বিপাশ যাদবপুর ইউনিয়নের সভাপতি এস এম সরকারকে দিয়ে দিয়ে নানা ধরনের অনৈতিক কাজ করাতে চাইলে সে তা করতে অসম্মতি জানায়। এস এম সরকার বিপাশ ও তার মদদদাতা অনুপ্রবেশকারী

নেতার অন্যায়ের কথা প্রকাশ করে দেয়। এজন্য বিপাশ তাকে নানা ভাবে হুমকি দেয়। বিভিন্ন হুমকি ধমকি ও মামলার ভয়ে এলাকা ছেড়ে ঢাকাতে লুকিয়ে থাকতে হয় এস এম সরকারকে। বাবার অসুস্থতার খবর পেয়ে হোসাইন বাড়ি আসে।তার বাবা হার্টের রুগি, হঠাৎ শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে গত ৬ ডিসেম্বর মহেশপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন তার ছেলে যাদবপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতা হোসাইন সরকার। এদিকে ৭ ডিসেম্বর ওত পেতে থাকা আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী পেটুয়া বাহিনী লালনকারী বর্তমান এমপির নির্দেশে বিপাশ গভীর রাতে ( রাত ১২.০০টায়) হাসপাতালে হাজির হয়। হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ পিতার সামনে এস এম সরকারকে বারবার অমানুষিক নির্যাতন ও নিজের

গালে জুতা পেটা করতে বাধ্য করে চঞ্চল এমপির পেটোয়া বাহিনী বিপাশ।ছেলের এই অমানুষিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে হোসাইনের বাবা মনকষ্ট নিয়ে মারা যান।এভবে একজন ত্যাগী আওয়ামী লীগ কর্মীর প্রাণ কেড়ে নেয় আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেকারী হাইব্রিড নেতা চঞ্চল এমপির পোষা গুণ্ডা বিপাশ, ধ্বংস করে দেয় পুরা পরিবার কে। এত কিছু অন্যায় করার পর বিপাশের শাস্তি হলো উপজেলা ছাত্রলীগের পদ থেকে অব্যাহতি।যা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলামাটিকে অপমান করার সামিল। তাই ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কাছে আমাদের দাবি এই গুন্ডা,হত্যাকারীকে জেলা ছাত্রলীগের পদ থেকে বহিষ্কার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার মাটিকে পবিত্রতা রক্ষা করা।জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

বিপাশ মহেশপুর উপজেলার ছাত্রলীগের সভাপতি ও ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি । সে অনুপ্রবেশকারী হাইব্রিড আওয়ামী লীগ নেতা চঞ্চল এমপির পেটোয়া বাহিনীর প্রধান। বিপাশ এলাকায় মাদকসম্রাট নামেও খ্যাত।সে সভাপতি পদ পাওয়ার পর থেকে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। এলাকায় চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, মাদকদ্রব্য চোরাচালানে বিপাশ সিদ্ধহস্ত। শুধু তাই নয় তার অনৈতিক প্রস্তাবে কেউ অসম্মতি জানালে তার উপর নেমে আসে নির্মম অত্যাচার। সে ও তার পেটোয়া বাহিনী মিলেই হাসপাতালের ডাঃ নাফিজেক লাঞ্ছিত করে। কয়কদিন আাগে বিপাশ যাদবপুর ইউনিয়নের সভাপতি এস এম সরকারকে দিয়ে দিয়ে নানা ধরনের অনৈতিক কাজ করাতে চাইলে সে তা করতে অসম্মতি জানায়। এস এম সরকার বিপাশ ও তার মদদদাতা অনুপ্রবেশকারী

নেতার অন্যায়ের কথা প্রকাশ করে দেয়। এজন্য বিপাশ তাকে নানা ভাবে হুমকি দেয়। বিভিন্ন হুমকি ধমকি ও মামলার ভয়ে এলাকা ছেড়ে ঢাকাতে লুকিয়ে থাকতে হয় এস এম সরকারকে। বাবার অসুস্থতার খবর পেয়ে হোসাইন বাড়ি আসে।তার বাবা হার্টের রুগি, হঠাৎ শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে গত ৬ ডিসেম্বর মহেশপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন তার ছেলে যাদবপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতা হোসাইন সরকার। এদিকে ৭ ডিসেম্বর ওত পেতে থাকা আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী পেটুয়া বাহিনী লালনকারী বর্তমান এমপির নির্দেশে বিপাশ গভীর রাতে ( রাত ১২.০০টায়) হাসপাতালে হাজির হয়। হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ পিতার সামনে এস এম সরকারকে বারবার অমানুষিক নির্যাতন ও নিজের

গালে জুতা পেটা করতে বাধ্য করে চঞ্চল এমপির পেটোয়া বাহিনী বিপাশ।ছেলের এই অমানুষিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে হোসাইনের বাবা মনকষ্ট নিয়ে মারা যান।এভবে একজন ত্যাগী আওয়ামী লীগ কর্মীর প্রাণ কেড়ে নেয় আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেকারী হাইব্রিড নেতা চঞ্চল এমপির পোষা গুণ্ডা বিপাশ, ধ্বংস করে দেয় পুরা পরিবার কে। এত কিছু অন্যায় করার পর বিপাশের শাস্তি হলো উপজেলা ছাত্রলীগের পদ থেকে অব্যাহতি।যা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলামাটিকে অপমান করার সামিল। তাই ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কাছে আমাদের দাবি এই গুন্ডা,হত্যাকারীকে জেলা ছাত্রলীগের পদ থেকে বহিষ্কার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার মাটিকে পবিত্রতা রক্ষা করা।জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

সদ্য বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা চঞ্চল এমপির পোষ্য গুন্ডা বিপাশের ইতিবৃত্ত

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৩ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৩:৪৫ 102 ভিউ
বিপাশ মহেশপুর উপজেলার ছাত্রলীগের সভাপতি ও ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি । সে অনুপ্রবেশকারী হাইব্রিড আওয়ামী লীগ নেতা চঞ্চল এমপির পেটোয়া বাহিনীর প্রধান। বিপাশ এলাকায় মাদকসম্রাট নামেও খ্যাত।সে সভাপতি পদ পাওয়ার পর থেকে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। এলাকায় চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, মাদকদ্রব্য চোরাচালানে বিপাশ সিদ্ধহস্ত। শুধু তাই নয় তার অনৈতিক প্রস্তাবে কেউ অসম্মতি জানালে তার উপর নেমে আসে নির্মম অত্যাচার। সে ও তার পেটোয়া বাহিনী মিলেই হাসপাতালের ডাঃ নাফিজেক লাঞ্ছিত করে। কয়কদিন আাগে বিপাশ যাদবপুর ইউনিয়নের সভাপতি এস এম সরকারকে দিয়ে দিয়ে নানা ধরনের অনৈতিক কাজ করাতে চাইলে সে তা করতে অসম্মতি জানায়। এস এম সরকার বিপাশ ও তার মদদদাতা অনুপ্রবেশকারী

নেতার অন্যায়ের কথা প্রকাশ করে দেয়। এজন্য বিপাশ তাকে নানা ভাবে হুমকি দেয়। বিভিন্ন হুমকি ধমকি ও মামলার ভয়ে এলাকা ছেড়ে ঢাকাতে লুকিয়ে থাকতে হয় এস এম সরকারকে। বাবার অসুস্থতার খবর পেয়ে হোসাইন বাড়ি আসে।তার বাবা হার্টের রুগি, হঠাৎ শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে গত ৬ ডিসেম্বর মহেশপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন তার ছেলে যাদবপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতা হোসাইন সরকার। এদিকে ৭ ডিসেম্বর ওত পেতে থাকা আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী পেটুয়া বাহিনী লালনকারী বর্তমান এমপির নির্দেশে বিপাশ গভীর রাতে ( রাত ১২.০০টায়) হাসপাতালে হাজির হয়। হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ পিতার সামনে এস এম সরকারকে বারবার অমানুষিক নির্যাতন ও নিজের

গালে জুতা পেটা করতে বাধ্য করে চঞ্চল এমপির পেটোয়া বাহিনী বিপাশ।ছেলের এই অমানুষিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে হোসাইনের বাবা মনকষ্ট নিয়ে মারা যান।এভবে একজন ত্যাগী আওয়ামী লীগ কর্মীর প্রাণ কেড়ে নেয় আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেকারী হাইব্রিড নেতা চঞ্চল এমপির পোষা গুণ্ডা বিপাশ, ধ্বংস করে দেয় পুরা পরিবার কে। এত কিছু অন্যায় করার পর বিপাশের শাস্তি হলো উপজেলা ছাত্রলীগের পদ থেকে অব্যাহতি।যা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলামাটিকে অপমান করার সামিল। তাই ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কাছে আমাদের দাবি এই গুন্ডা,হত্যাকারীকে জেলা ছাত্রলীগের পদ থেকে বহিষ্কার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার মাটিকে পবিত্রতা রক্ষা করা।জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ