লিম্ফোসাইট কোষের ক্যান্সার - বর্ণমালা টেলিভিশন

লিম্ফোসাইট কোষের ক্যান্সার বলতে নন হজকিন লিম্ফোমাকে বুঝানো হয়। নন হজকিন লিম্ফোমা হল লিম্ফেটিক সিস্টেমের এক ধরনের ক্যান্সার যার কারণে মুখে আলসার দেখা দিতে পারে। নন হজকিন লিম্ফোমাকে নন হজকিন লিম্ফোমাও বলা হয়। নন হজকিন লিম্ফোমা শুরু হয় লিম্ফোসাইট নামক সেল বা কোষ থেকে।

লিম্ফোসাইট কোষ শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার অংশ। রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল হওয়ার কারণে নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। কিন্তু এটি আরম্ভ হয় যখন কারও শরীর অনেক বেশি অস্বাভাবিক লিম্ফোসাইট কোষ উৎপাদন শুরু করে। লিম্ফোসাইট এক ধরনের শ্বেত রক্ত কনিকা।

অস্বাভাবিক লিম্ফোসাইট উৎপাদনের কারণে অতিরিক্ত লিম্ফোসাইট লিম্ফনোড বা লসিকা গ্রন্থিতে জমা হয় যার কারণে লিম্ফনোড বা লসিকা গ্রন্থি

ফুলে যায়। নন হজকিন লিম্ফোমা লিম্ফনোডে হয়ে থাকে। কিন্তু এ ক্যান্সার লিম্ফেটিক সিস্টেমের অন্যান্য অংশেও বিস্তৃতি লাভ করতে পারে। এরই মধ্যে লসিকা নালি, টনসিল, এডেনয়েডস্, প্লীহা, থাইমাস এবং অস্থিমজ্জা অন্যতম।

এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। এইচ.আই.ভি ভাইরাস ছাড়াও এপস্টেন বার ভাইরাস সংক্রমণে নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। আবার ইমমিউনোসাপ্রেসিভ থেরাপির কারণেও নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। এ অবস্থায় রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল থাকে। লিম্ফোসাইট প্রধানত দুই ধরনের হয়ে থাকে। B লিম্ফোসাইট এবং T লিম্ফোসাইট। উভয় ধরনের লিম্ফোসাইট থেকে লিম্ফোমা সেল হতে পারে। কিন্তু B লিম্ফোমা অনেক বেশি হয়ে থাকে।

উপসর্গ : নন হজকিন লিম্ফোমার ক্ষেত্রে ব্যথাযুক্ত অবস্থায় সারভাইকাল

লিম্ফনোডগুলো বড় হয়ে যায়। প্রাথমিক অবস্থায় রোগীরা এ বর্ণনা বা অভিযোগ করে থাকেন। (১) মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা ঘাঁ দেখা দেয় এবং মুখ ফুলে যেতে পারে। (২) চোয়াল খোলার ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা দেখা দিতে পারে। (৩)মুখের সংক্রমণ বিশেষ করে ভাইরাস এবং ফাঙ্গাসের কারণে হতে পারে। (৪) সাইটোটক্সিক বা কোষ বিনাশকারী ওষুধের কারণে মিউকোসাইটিস বা মুখের আলসার। (৫) এনিমিয়া বা রক্তস্বল্পতা। (৬)

কর্টিকোস্টেরয়েড থেরাপির কারণে মুখের সমস্যা। (৭) মুখের অভ্যন্তরে সামান্য আঘাতে রক্তপাতের সম্ভাবনা। (৮) একউিট লিউকেমিয়াঃ চিকিৎসা প্রাপ্তদের শতকরা ৭ ভাগের ক্ষেত্রে এমনটি হতে পারে।

সিস্টেমিক এবং অন্যান্য উপসর্গ : ক) জ্বর খ) রাতে ঘাম দেয়া গ) ওজন কমে যাওয়া ঘ) ক্রমাগত

দুর্বলতা ঙ) বুকে ব্যথা অথবা শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া চ) পেটে ব্যথা বা ফুলা ভাব ছ) খাওয়ায় অরুচি জ) চুলকানি।

এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে নন হজকিন লিম্ফোমা ছাড়াও এনজিওসারকোমা, মিলানোমা এবং কম ক্ষেত্রে স্কোয়ামাস সেল কারসিনোমা বা ক্যান্সার হতে পারে।
চিকিৎসা : নন হজকিন লিম্ফোমার কারণে চিকিৎসায় কেমোথেরাপি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। মাঝে মাঝে কেমোথেরাপির পাশাপাশি কম্বিনেশন থেরাপি হিসাবে রেডিও থেরাপিও ব্যবহার করা হয় যা নির্ধারণ করবেন একজন অনকোলজিস্ট বা ক্যান্সার রোগ বিশেষজ্ঞ। খুব কম ক্ষেত্রে যদি প্রাথমিক অবস্থায় ক্যান্সার খুব ছোট হয় এবং বায়োপসি করার সময় অপসারণ করা যায় তাহলে আর কোনো চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না। এ ছাড়া স্টেম সেল

থেরাপির মাধ্যমে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

অতএব, নন হজকিন লিম্ফোমা রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে এবং মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা অন্য কোনো সমস্যা থাকলে দ্রুত সমাধান করতে হবে যাতে রোগীর খাদ্যদ্রব্য গ্রহণের সময় কোনো সমস্যা না হয়। এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের প্রতি কোনো অবহেলা না করে তাদের সহযোগিতা প্রদান করতে হবে যাতে তারা স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারে। একটু ভালোবাসাই পারে পুরো জীবনটাকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে।

লেখক : মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
dr.faruqu@gmail.com

লিম্ফোসাইট কোষের ক্যান্সার বলতে নন হজকিন লিম্ফোমাকে বুঝানো হয়। নন হজকিন লিম্ফোমা হল লিম্ফেটিক সিস্টেমের এক ধরনের ক্যান্সার যার কারণে মুখে আলসার দেখা দিতে পারে। নন হজকিন লিম্ফোমাকে নন হজকিন লিম্ফোমাও বলা হয়। নন হজকিন লিম্ফোমা শুরু হয় লিম্ফোসাইট নামক সেল বা কোষ থেকে।

লিম্ফোসাইট কোষ শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার অংশ। রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল হওয়ার কারণে নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। কিন্তু এটি আরম্ভ হয় যখন কারও শরীর অনেক বেশি অস্বাভাবিক লিম্ফোসাইট কোষ উৎপাদন শুরু করে। লিম্ফোসাইট এক ধরনের শ্বেত রক্ত কনিকা।

অস্বাভাবিক লিম্ফোসাইট উৎপাদনের কারণে অতিরিক্ত লিম্ফোসাইট লিম্ফনোড বা লসিকা গ্রন্থিতে জমা হয় যার কারণে লিম্ফনোড বা লসিকা গ্রন্থি

ফুলে যায়। নন হজকিন লিম্ফোমা লিম্ফনোডে হয়ে থাকে। কিন্তু এ ক্যান্সার লিম্ফেটিক সিস্টেমের অন্যান্য অংশেও বিস্তৃতি লাভ করতে পারে। এরই মধ্যে লসিকা নালি, টনসিল, এডেনয়েডস্, প্লীহা, থাইমাস এবং অস্থিমজ্জা অন্যতম।

এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। এইচ.আই.ভি ভাইরাস ছাড়াও এপস্টেন বার ভাইরাস সংক্রমণে নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। আবার ইমমিউনোসাপ্রেসিভ থেরাপির কারণেও নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। এ অবস্থায় রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল থাকে। লিম্ফোসাইট প্রধানত দুই ধরনের হয়ে থাকে। B লিম্ফোসাইট এবং T লিম্ফোসাইট। উভয় ধরনের লিম্ফোসাইট থেকে লিম্ফোমা সেল হতে পারে। কিন্তু B লিম্ফোমা অনেক বেশি হয়ে থাকে।

উপসর্গ : নন হজকিন লিম্ফোমার ক্ষেত্রে ব্যথাযুক্ত অবস্থায় সারভাইকাল

লিম্ফনোডগুলো বড় হয়ে যায়। প্রাথমিক অবস্থায় রোগীরা এ বর্ণনা বা অভিযোগ করে থাকেন। (১) মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা ঘাঁ দেখা দেয় এবং মুখ ফুলে যেতে পারে। (২) চোয়াল খোলার ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা দেখা দিতে পারে। (৩)মুখের সংক্রমণ বিশেষ করে ভাইরাস এবং ফাঙ্গাসের কারণে হতে পারে। (৪) সাইটোটক্সিক বা কোষ বিনাশকারী ওষুধের কারণে মিউকোসাইটিস বা মুখের আলসার। (৫) এনিমিয়া বা রক্তস্বল্পতা। (৬)

কর্টিকোস্টেরয়েড থেরাপির কারণে মুখের সমস্যা। (৭) মুখের অভ্যন্তরে সামান্য আঘাতে রক্তপাতের সম্ভাবনা। (৮) একউিট লিউকেমিয়াঃ চিকিৎসা প্রাপ্তদের শতকরা ৭ ভাগের ক্ষেত্রে এমনটি হতে পারে।

সিস্টেমিক এবং অন্যান্য উপসর্গ : ক) জ্বর খ) রাতে ঘাম দেয়া গ) ওজন কমে যাওয়া ঘ) ক্রমাগত

দুর্বলতা ঙ) বুকে ব্যথা অথবা শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া চ) পেটে ব্যথা বা ফুলা ভাব ছ) খাওয়ায় অরুচি জ) চুলকানি।

এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে নন হজকিন লিম্ফোমা ছাড়াও এনজিওসারকোমা, মিলানোমা এবং কম ক্ষেত্রে স্কোয়ামাস সেল কারসিনোমা বা ক্যান্সার হতে পারে।
চিকিৎসা : নন হজকিন লিম্ফোমার কারণে চিকিৎসায় কেমোথেরাপি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। মাঝে মাঝে কেমোথেরাপির পাশাপাশি কম্বিনেশন থেরাপি হিসাবে রেডিও থেরাপিও ব্যবহার করা হয় যা নির্ধারণ করবেন একজন অনকোলজিস্ট বা ক্যান্সার রোগ বিশেষজ্ঞ। খুব কম ক্ষেত্রে যদি প্রাথমিক অবস্থায় ক্যান্সার খুব ছোট হয় এবং বায়োপসি করার সময় অপসারণ করা যায় তাহলে আর কোনো চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না। এ ছাড়া স্টেম সেল

থেরাপির মাধ্যমে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

অতএব, নন হজকিন লিম্ফোমা রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে এবং মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা অন্য কোনো সমস্যা থাকলে দ্রুত সমাধান করতে হবে যাতে রোগীর খাদ্যদ্রব্য গ্রহণের সময় কোনো সমস্যা না হয়। এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের প্রতি কোনো অবহেলা না করে তাদের সহযোগিতা প্রদান করতে হবে যাতে তারা স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারে। একটু ভালোবাসাই পারে পুরো জীবনটাকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে।

লেখক : মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
dr.faruqu@gmail.com

লিম্ফোসাইট কোষের ক্যান্সার

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ২ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৮:৩০ 106 ভিউ
লিম্ফোসাইট কোষের ক্যান্সার বলতে নন হজকিন লিম্ফোমাকে বুঝানো হয়। নন হজকিন লিম্ফোমা হল লিম্ফেটিক সিস্টেমের এক ধরনের ক্যান্সার যার কারণে মুখে আলসার দেখা দিতে পারে। নন হজকিন লিম্ফোমাকে নন হজকিন লিম্ফোমাও বলা হয়। নন হজকিন লিম্ফোমা শুরু হয় লিম্ফোসাইট নামক সেল বা কোষ থেকে। লিম্ফোসাইট কোষ শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার অংশ। রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল হওয়ার কারণে নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। কিন্তু এটি আরম্ভ হয় যখন কারও শরীর অনেক বেশি অস্বাভাবিক লিম্ফোসাইট কোষ উৎপাদন শুরু করে। লিম্ফোসাইট এক ধরনের শ্বেত রক্ত কনিকা। অস্বাভাবিক লিম্ফোসাইট উৎপাদনের কারণে অতিরিক্ত লিম্ফোসাইট লিম্ফনোড বা লসিকা গ্রন্থিতে জমা হয় যার কারণে লিম্ফনোড বা লসিকা গ্রন্থি

ফুলে যায়। নন হজকিন লিম্ফোমা লিম্ফনোডে হয়ে থাকে। কিন্তু এ ক্যান্সার লিম্ফেটিক সিস্টেমের অন্যান্য অংশেও বিস্তৃতি লাভ করতে পারে। এরই মধ্যে লসিকা নালি, টনসিল, এডেনয়েডস্, প্লীহা, থাইমাস এবং অস্থিমজ্জা অন্যতম। এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। এইচ.আই.ভি ভাইরাস ছাড়াও এপস্টেন বার ভাইরাস সংক্রমণে নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। আবার ইমমিউনোসাপ্রেসিভ থেরাপির কারণেও নন হজকিন লিম্ফোমা হতে পারে। এ অবস্থায় রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল থাকে। লিম্ফোসাইট প্রধানত দুই ধরনের হয়ে থাকে। B লিম্ফোসাইট এবং T লিম্ফোসাইট। উভয় ধরনের লিম্ফোসাইট থেকে লিম্ফোমা সেল হতে পারে। কিন্তু B লিম্ফোমা অনেক বেশি হয়ে থাকে। উপসর্গ : নন হজকিন লিম্ফোমার ক্ষেত্রে ব্যথাযুক্ত অবস্থায় সারভাইকাল

লিম্ফনোডগুলো বড় হয়ে যায়। প্রাথমিক অবস্থায় রোগীরা এ বর্ণনা বা অভিযোগ করে থাকেন। (১) মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা ঘাঁ দেখা দেয় এবং মুখ ফুলে যেতে পারে। (২) চোয়াল খোলার ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা দেখা দিতে পারে। (৩)মুখের সংক্রমণ বিশেষ করে ভাইরাস এবং ফাঙ্গাসের কারণে হতে পারে। (৪) সাইটোটক্সিক বা কোষ বিনাশকারী ওষুধের কারণে মিউকোসাইটিস বা মুখের আলসার। (৫) এনিমিয়া বা রক্তস্বল্পতা। (৬) কর্টিকোস্টেরয়েড থেরাপির কারণে মুখের সমস্যা। (৭) মুখের অভ্যন্তরে সামান্য আঘাতে রক্তপাতের সম্ভাবনা। (৮) একউিট লিউকেমিয়াঃ চিকিৎসা প্রাপ্তদের শতকরা ৭ ভাগের ক্ষেত্রে এমনটি হতে পারে। সিস্টেমিক এবং অন্যান্য উপসর্গ : ক) জ্বর খ) রাতে ঘাম দেয়া গ) ওজন কমে যাওয়া ঘ) ক্রমাগত

দুর্বলতা ঙ) বুকে ব্যথা অথবা শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া চ) পেটে ব্যথা বা ফুলা ভাব ছ) খাওয়ায় অরুচি জ) চুলকানি। এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে নন হজকিন লিম্ফোমা ছাড়াও এনজিওসারকোমা, মিলানোমা এবং কম ক্ষেত্রে স্কোয়ামাস সেল কারসিনোমা বা ক্যান্সার হতে পারে। চিকিৎসা : নন হজকিন লিম্ফোমার কারণে চিকিৎসায় কেমোথেরাপি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। মাঝে মাঝে কেমোথেরাপির পাশাপাশি কম্বিনেশন থেরাপি হিসাবে রেডিও থেরাপিও ব্যবহার করা হয় যা নির্ধারণ করবেন একজন অনকোলজিস্ট বা ক্যান্সার রোগ বিশেষজ্ঞ। খুব কম ক্ষেত্রে যদি প্রাথমিক অবস্থায় ক্যান্সার খুব ছোট হয় এবং বায়োপসি করার সময় অপসারণ করা যায় তাহলে আর কোনো চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না। এ ছাড়া স্টেম সেল

থেরাপির মাধ্যমে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। অতএব, নন হজকিন লিম্ফোমা রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে এবং মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা অন্য কোনো সমস্যা থাকলে দ্রুত সমাধান করতে হবে যাতে রোগীর খাদ্যদ্রব্য গ্রহণের সময় কোনো সমস্যা না হয়। এইচ.আই.ভি পজেটিভ ব্যক্তিদের প্রতি কোনো অবহেলা না করে তাদের সহযোগিতা প্রদান করতে হবে যাতে তারা স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারে। একটু ভালোবাসাই পারে পুরো জীবনটাকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে। লেখক : মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ dr.faruqu@gmail.com

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ