রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুতকেন্দ্র নির্মাণকাজে ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব পড়বে না ॥ পরিকল্পনামন্ত্রী – বর্ণমালা টেলিভিশন

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুতকেন্দ্র নির্মাণকাজে ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব পড়বে না ॥ পরিকল্পনামন্ত্রী

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ২ মার্চ, ২০২২ | ৯:৫৪ 45 ভিউ
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জানিয়েছেন, রাশিয়ার সহায়তায় চলমান রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুতকেন্দ্র নির্মাণকাজে ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব পড়বে না । আজ বুধবার (০২ মার্চ) এনইসি চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভা (ভার্চ্যুয়াল) অনুষ্ঠিত হয়। রাজধানীর শেরে বাংলা নগর এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এ সভায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভা শেষে ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, রূপপুরে যে প্ল্যান্টটা আমরা করছি, সেটা সম্পূর্ণভাবে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি। দ্বিপাক্ষিক ওই সেন্সে—যন্ত্রপাতি, জ্ঞান, টাকা সবই রাশিয়ার। এর সঙ্গে তৃতীয় কোনো পক্ষ জড়িত নয়। আসা-যাওয়া, মালামাল, চলাচল, এতদিন যখন কোভিডের সময় হয়েছে, কোভিডের সময়টা যুদ্ধের চেয়ে কম ছিল না, সবকিছু বন্ধ ছিল পৃথিবীর, রাশিয়ানরা প্লেন উড়িয়ে যন্ত্রপাতি, লোক-লস্কর নিয়ে এসেছে, সুতরাং এখনো না আসতে পারার কোনো কারণ নেই। মন্ত্রী বলেন, আমার জানা মতে, বিজ্ঞান প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় খোঁজ-খবর রাখে। ওই ধরনের কোনো হাওয়া এখনো লাগে নাই। সুতরাং যন্ত্রপাতি, লোক, অর্থ—তিনটাই সিঙ্গেল চ্যানেল, তৃতীয় কোনো পক্ষ নেই। সুতরাং সরাসরী কোনো প্রভাব পড়বে না। যদি যুদ্ধ দীর্ঘমেয়াদি হয়, তখন কোনো পার্শ্বপ্রভাব পড়বে কিনা সেটা পণ্ডিত ব্যক্তিরা গবেষণা করে দেখবেন। আমরা সচেতন নাগরিকরা খোঁজখবর রাখবো, দেখবো। বাংলাদেশের অবস্থান যুদ্ধের বিরুদ্ধে জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ইউক্রেনের যুদ্ধ বা রাশিয়ার যুদ্ধ, আমরা যুদ্ধের বিরুদ্ধে। সার্বিকভাবে প্রধানমন্ত্রী পরিষ্কার বলেছেন, আমরা শান্তিকামী দেশ, শান্তি চাই। যাই হোক তারা যুদ্ধ করছে। উভয় রাষ্ট্রই আমাদের বন্ধু। ইউক্রেনও আমাদের বন্ধু, আর রাশিয়া তো গভীর, দীর্ঘদিনের বন্ধু। রাশিয়ার সহায়তায় বাংলাদেশের পাবনার ঈশ্বরদীতে নির্মিত হচ্ছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র। এ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে জন্য ২০১৫ সালে রাশিয়ার সঙ্গে ১২ দশমিক ৬৫ বিলিয়ন ডলারের (১ লাখ ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা) ঋণচুক্তি করে বাংলাদেশ সরকার। এক হাজার ৬২ একর জমির ওপর দুই ইউনিটের এই পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে কাজ করছেন প্রায় ২৫ হাজার দেশি-বিদেশি শ্রমিক, প্রকৌশলী, বিশেষজ্ঞ। ২০২৩ সালের এপ্রিলে রূপপুরের ১২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার প্রথম ইউনিট থেকে জাতীয় গ্রিডে পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু করা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:



































শীর্ষ সংবাদ:
বেনাপোল সীমান্তে সচল পিস্তলসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রেফতার নির্মাণসামগ্রীর দাম চড়া, উন্নয়ন প্রকল্পে ধীরগতি কলম্বোতে কারফিউ জারি টিকে থাকার লড়াইয়ে ছক্কা হাকাতে পারবেন ইমরান খান? করোনায় আজও মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত কমেছে ‘ততক্ষণ খেলব যতক্ষণ না আমার চেয়ে ভালো কাউকে দেখব’ এবার ইয়েমেনে পাল্টা হামলা চালাল সৌদি জোট স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানি করেছে মোদি সরকার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়া নিয়ে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, এলাকা রণক্ষেত্র ইউক্রেনকে বিপুল ক্ষেপণাস্ত্র ও মেশিনগান দিয়েছে জার্মানি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩ ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাবের ‘লাল-সবুজের পতাকা বিশ্বজুড়ে আনবে একতা‘-শীর্ষক সভা বঙ্গবন্ধু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর নওহাঁটায় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন । ভূরুঙ্গামারীতে ব্যাপরোয়া অটোরিকশা কেরে নিল শিশুর ফাহিম এর প্রাণ ভূরুঙ্গামারী কিশোর গ‍্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ৬ তম রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ৫২ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-২ বেনাপোল স্থলপথে স্টুডেন্ট ভিসায় বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমন নিষেধ গেরিলা যোদ্ধা অপূর্ব