রিক্সাচিত্রে চমক, গল্প আড্ডাগুলোও রঙিন হয়ে উঠেছে – বর্ণমালা টেলিভিশন

নিউজ ডেক্স
আপডেটঃ ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
৮:১৫ পূর্বাহ্ণ
68 ভিউ

রিক্সাচিত্রে চমক, গল্প আড্ডাগুলোও রঙিন হয়ে উঠেছে

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ | ৮:১৫ 68 ভিউ
টিএসসি এলাকাটি যারপরনাই চেনা। প্রতিদিনের। কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চেনা এ জায়গাটিকেই এখন কিছুটা নতুন মনে হচ্ছে। কোথায় পরিবর্তন? কী হঠাৎ বদলে গেলো? না, চট জলদি ধরে ফেলা যাবে না। তবে একটু খেয়াল করলে চোখে পড়বে, ঐতিহ্যবাহী রিক্সাচিত্রের অভিনব এক প্রদর্শনী চলছে এখানে। ঢাকার প্রাচীন প্রচলিত রিক্সাচিত্রে সাজানো হয়েছে ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রের বহিরাঙ্গন। সীমানা প্রাচীর ঘিরে থাকা চা দোকানগুলোকে রং তুলি দিয়ে এঁকে নেয়া হয়েছে। তাতেই মনে হচ্ছে বড় কোন পরিবর্তন ঘটে গেছে। চায়ের দোকান তো বটেই, গল্প আড্ডাগুলোও যেন আগের তুলনায় রঙিন হয়ে উঠেছে। দৃষ্টি কাড়ছে সবার। চমকিত করছে। টিএসসির অর্ধচন্দ্রাকৃতি দেয়ালের বাইরের অংশে বেশ কিছু চায়ের দোকান। দোকান বলতে, সারাক্ষণ জ্বলতে থাকা চুলো, একাধিক বড় কেটলি আর ধোঁয়া উঠতে থাকা চায়ের কাপ। এসবের বাইরে চার পায়ের ওপর ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা একটি স্টেনলেজ স্টিলের বাক্স বিশেষ চোখে পড়ে। বাক্সের ওপরের অংশে বিস্কুট ইত্যাদির বৈয়াম সাজিয়ে রাখা হয়। আর বাক্সের সামনে অংশে পাতা থাকে সরু বেঞ্চ। সম্প্রতি এসব বিবর্ণ দোকান, চায়ের কেটলি ও আসবাবগুলোকেই আশ্রয় করেছেন একদল শিল্পী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থী ও রিক্সা পেইন্টিংয়ের মূল শিল্পীরা এ দলে ছিলেন। তারা সবাই মিলে দোকানের প্রতিটি জিনিসকে চিত্রিত করেছেন। শ্রীবৃদ্ধি ঘটিয়েছেন। কয়েক রাত ধরে কাজ করেছে দলটি। সকালে তাদের কাজ দেখে সবাই অবাক! সবারই চোখ ছানাবড়া। রিক্সার কাঠামোতে টিনের পাত ব্যবহার করা হয়। পাতের ওপর আঁকা হয় স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যের ছবি। টিএসসির শিল্পীরা টিনের পাতের বিকল্প হিসেবে বেছে নেন চায়ের কেটলি। বড়সড়ো কেটলির গা নানা রঙে আঁকেন। বেঞ্চের তক্তায় লতা পাতার নক্সা। স্টেইনলেজ স্টিলের বাক্সের সামনেও ছবি আঁকা হয়েছে। এখানে বড় জায়গা এবং খুবই দৃশ্যমান। তাই ডিটেইল কাজ। দূর থেকেও আলাদাভাবে চোখে পড়ে। রিক্সাচিত্রে এনামেল পেইন্ট ব্যবহার করা হয়। একই রং বেছে নিয়েছেন শিল্পীরা। প্রচলিত ফর্ম নিয়ে কাজ করেছেন। ফুল, পদ্ম, লতা, পাতা ইত্যাদির নক্সা ব্যবহার করা হয়েছে। আছে ফিগারেটিভ কিছু কাজও। সিনেমার বিজ্ঞাপন বা নায়ক-নায়িকাকে ঠিক খুঁজে পাওয়া যায় না। তবে লাল ঝুটিওয়ালা মোরগ বা লম্বা পুচ্ছ ধারণ করে থাকা ময়ূর রিক্সাচিত্রের চেনা ফর্মে ফিরেছে। ছবি তো বটেই, ব্যবহার করা রং রিক্সাচিত্রের কথাই মনে করিয়ে দিচ্ছে। এভাবে দোকানগুলো শুধু আর দোকান হয়ে নেই। ঢাকার ঐতিহ্য তুলে ধরা শোপিস, সুভ্যেনিওর বা গৃহসজ্জা সামগ্রীর মতো মনে হচ্ছে। সবকটি দোকানে শিল্পস্পর্শ। তাই পুরো এলাকার রংটিই বদলে গেছে। একটা উৎসব উৎসব ভাব। যতদূর জানা যায়, প্রশংসিত উদ্যোগটির শুভ সূচনা করা হয় গত মঙ্গলবার। শিল্পী ও সংগঠক মিলিয়ে মোটামুটি ১৩ জন কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। দিনের বেলায় ব্যবসা চলমান থাকে। তাতে ব্যাঘাত ঘটানো উচিত হবে না। তাই গভীর রাতে নির্জন টিএসসিতে আলো জ্বালিয়ে কাজ করেন শিল্পীরা। কয়েক দিনের চেষ্টায় তারা গোটা এলাকাটিকে রঙিন করে তুলেন। রিক্সাচিত্রের মূল উদ্যোক্তা হিসেবে সামনে এসেছে শিরিন আক্তার শিলার নামটি। না, তিনি চারুকলার নন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞানের শিক্ষার্থী। কিন্তু এই চিন্তা কিভাবে মাথায় এলো? জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি আমাদের নিজেদের শিল্প সংস্কৃতি ঐতিহ্যকে ভালবাসি। এটাই সবখানে তুলে ধরতে চাই। বিষয়টি আরও পরিস্কার হয় যখন ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জের অপরূপা নারী তার আরেকটি পরিচয় প্রকাশ করেন। কিছুটা পেছনে ফিরে গিয়ে তিনি বলেন, আমি মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০১৯ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলাম। তখন অভিন্ন আগ্রহের জায়গা থেকে কস্টিউম হিসেবে বেছে নিয়েছিলাম ঢাকাই জামদানিকে। আর প্রপস হিসেবে ব্যবহার করেছিলাম রিক্সাহুড। ইচ্ছে ছিল রিক্সাচিত্র নিয়ে ভবিষ্যতে আরও কাজ করবো। সেটাই এবার করলাম আমরা। উদ্যোগটিকে ‘দ্বিতীয় অধ্যায়: চা এর কাপে রিক্সা পেইন্ট’ নাম দিয়েছেন বলেও জানান তিনি। দলের আরেক সদস্য সীমান্ত সাহা জানান, টিএসসিতে এই বন্ধুরা মিলে নিয়মিত আড্ডা দেন। একদিন সেখানে বসে কথা বলতে বলতেই পরিকল্পটা চূড়ান্ত হয়ে যায়। তার পর দোকানিদের সঙ্গে কথা বলে কাজে নামেন তারা। ইমোশন থেকেই কাজটি করা বলে জানান তিনি। এর ফলে ফোক আর্ট ও ভুলতে বসা রিক্সাচিত্রের অতীত গৌরব নতুন করে সামনে এসেছে বলে মনে করেন দলের আরেক সদস্য জেরিন সিন্থি। রিক্সাচিত্রের খ্যাতিমান শিল্পী মোহাম্মদ হানিফ পাপ্পুও এ দলের হয়ে ছবি এঁকেছেন। তার মতে, এখন রিক্সাচিত্রের মূল বৈশিষ্ট্যগুলো কেমন যেন হারিয়ে যাচ্ছে। এখানে তাই মূল ধারাটিকেই গুরুত্বের সঙ্গে উপস্থাপন করা হয়েছে বলে জানান তিনি। হঠাৎ এমন পরিবর্তনে দারুণ খুশি দোকানিরাও। ইসমাইল নামের এক দোকানি বলছিলেন, ‘আগে আমগোর লগে আপারা (শিল্পী দলের কেউ) কথা বলছে। কিন্তু কী কাজ করব তারা, বুুঝি নাই। পরে সকালে আইসা দেখি, ছবি টবি আঁকছে। দোকান দেইখা নিজেই চিনতে পারতেছিলাম না, এত সুন্দর!’ কালাম নামের আরেক দোকানির বলাটি এরকম- ‘চা খাইতে আইসা মানুষ এখন এইগুলা দেখে। ছবি মবি উডায়, ভালই লাগে।’ কী সরল অভিব্যক্তি! সামান্য উচ্চারণেও চিত্রকলার প্রতি দোকানির যে ভালবাসা, ঠিক অনুমান করা যায়। চা বিক্রেতা শাহাবুদ্দীন তো আগুনের ওপর থেকে তার কেটলি নামিয়ে দেখাতে শুরু করলেন। কেটলির গায়ে আলপনার ফর্ম। বললেন, ‘চারুকলার আপারা আমার এইগুলারে সুন্দর কইরা আঁইকক্যা দিছে।’ আগুনের আচে কেটলির ছবি যেন নষ্ট না হয়ে যায় সেদিকে খেয়াল রাখছেন বলেও জানান তিনি। বলেন, ‘ছবিডা তো মাইষে দেখবো, অনেক কথা জিগাইবো, নষ্ট করলে তো আর হইবো না।’ অর্থাৎ, রিক্সাচিত্রের প্রতি একটা টান অনুভব করতে শুরু করেছেন চা দোকানিরাও। এদিকে, নতুন রূপটি ক্যামেরাবন্দী করতে ব্যস্ত টিএসসিতে আগত বিভিন্ন বয়সী মানুষ। তাদের একজন বিশ্ববিদ্যালয়েরই শিক্ষার্থী সুমনা বলছিলেন, আগে তো শুকনো একটা পরিবেশ ছিল। মাছির ভনভনটাই চোখে পড়ত বেশি। এখন প্রাণবন্ত একটা ছবি। পোস্টারে যখন ঢাকার সবকটি দেয়াল নষ্ট হয়ে আছে তখন এমন উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে। সাধারণের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সবাইকে তাই ধন্যবাদ জানাতেও ভুল করেন না তিনি।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:



































শীর্ষ সংবাদ:
বেনাপোল সীমান্তে সচল পিস্তলসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রেফতার নির্মাণসামগ্রীর দাম চড়া, উন্নয়ন প্রকল্পে ধীরগতি কলম্বোতে কারফিউ জারি টিকে থাকার লড়াইয়ে ছক্কা হাকাতে পারবেন ইমরান খান? করোনায় আজও মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত কমেছে ‘ততক্ষণ খেলব যতক্ষণ না আমার চেয়ে ভালো কাউকে দেখব’ এবার ইয়েমেনে পাল্টা হামলা চালাল সৌদি জোট স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানি করেছে মোদি সরকার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়া নিয়ে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, এলাকা রণক্ষেত্র ইউক্রেনকে বিপুল ক্ষেপণাস্ত্র ও মেশিনগান দিয়েছে জার্মানি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩ ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাবের ‘লাল-সবুজের পতাকা বিশ্বজুড়ে আনবে একতা‘-শীর্ষক সভা বঙ্গবন্ধু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর নওহাঁটায় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন । ভূরুঙ্গামারীতে ব্যাপরোয়া অটোরিকশা কেরে নিল শিশুর ফাহিম এর প্রাণ ভূরুঙ্গামারী কিশোর গ‍্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ৬ তম রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ৫২ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-২ বেনাপোল স্থলপথে স্টুডেন্ট ভিসায় বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমন নিষেধ গেরিলা যোদ্ধা অপূর্ব