ঢাকা, Thursday 28 October 2021

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

রাজশাহীতে করোনা ঝুঁকি, মাস্কেই ভরসা, আবারো প্রশাসন তৎপর।

প্রকাশিত : 07:51 AM, 17 March 2021 Wednesday
79 বার পঠিত

| ডোনেট বিডি নিউজ ডেস্কঃ |

সারাদেশের মতো রাজশাহীতে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা বৃদ্ধি না পেলেও সংক্রমণ ঝুঁকি বেড়েছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের সঙ্গে বেড়েছে গরম-ঠান্ডা জনিত বিভিন্ন সমস্যায় আক্রান্ত রোগি। জ¦র-সর্দি-কাশির মতো উপসর্গগুলোকে এখন সাধারণভাবেই নিচ্ছে সাধারণ মানুষ। দোকানপাট, অফিস, আদালত, গণপরিবহনসহ কোথাও স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। তবে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির শঙ্কায় উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভ্যাকসিনের সাথে মাস্কেই গুরুত্ব দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।
এরইমধ্যে সবার মাস্ক পরা নিশ্চিতে বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের চিঠি দিয়েছে সরকার। শনিবার (১৩ মার্চ) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ নির্দেশনা সংবলিত চিঠি পাঠানো হয়েছে।
সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য মতে, রাজশাহীতে পহেলা মার্চ করোনা পজিটিভ রোগির সংখ্যা ছিলো

মোট ৬ হাজার ৬৩ জন। এরমধ্যে নগরীতে ৪ হাজার ৫৭৬ জন। সুস্থতার সংখ্যা ছিলো ৫ হাজার ৭৭৬ জন এরমধ্যে নগরীতে ৪ হাজার ৩১৪ জন। মৃত্যের সংখ্যা ছিলো ৫৫ জন এরমধ্যে নগরীতে ৩৪ জন। চিকিৎসাধীন ছিলো ২৩২ জন এরমধ্যে নগরীতে ২২৮ জন। অপরদিকে সোমবার (১৫ মার্চ) করোনা পজিটিভ রোগির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে মোট ৬ হাজার ১৩৩ জন। এরমধ্যে নগরীতে ৪ হাজার ৪৪৬ জন। সুস্থতার সংখ্যা ৫ হাজার ৮৩৫ জন এরমধ্যে নগরীতে ৪ হাজার ৩৬৪ জন। চিকিৎসাধীন রয়েছে ২৪৩ জন। যারা প্রত্যেকেই নগরীর। এমাসে করোনা আক্রান্ত হয়ে কেউ মৃত্যুবরণ করেন নি।
রাজশাহীতে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা বৃদ্ধি

না পেলেও সংক্রমণ ঝুঁকি বেশি বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। রাজশাহী সিভিল সার্জন কাইয়ুম তালুকদার জানান, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও রাজশাহীতে কম আছে। তবে সংক্রমণ ঝুঁকি কম নয়। কেননা রাজশাহীতে করোনা টেস্ট কমে গেছে। করোনা নিয়ে সচেনতাও কমে গেছে। গ্রামে অনেকে করোনাকে এখনো বিশ্বাসও করে না। এতে সংখ্যায় কম দেখা গেলেও ভেতরে ভেতরে হয়তো অনেকেই করোনাই আক্রান্ত হচ্ছেন।
রাজশাহী জেলায় এখন পর্যন্ত প্রায় ১ লাখ মানুষ করোনা ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এরমধ্যে সোমবার ২ হাজার ১৪৪ জন করোনার ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ১ হাজার ৫৩ জন ও নারী রয়েছেন ১ হাজার ৯১ জন।
ভ্যাকসিন নেয়া

ব্যক্তিরা করোনা আক্রান্ত হওয়া থেকে কতটুকু সুরক্ষিত এমন প্রশ্নে সিভিল সার্জন কাইয়ুম তালুকদার গণমাধ্যমকে জানান, করোনা মোকাবিলায় ভ্যাকসিনের চেয়ে অবশ্যই মাস্কে গুরুত্ব দিতে হবে। কেননা সবাইকে করোনা ভ্যাকসিন দেয়া সম্ভব না। আর করোনা ভ্যাকসিন সাধারণত দ্বিতীয় ডোজ দেয়ার ১৫ দিন পর সবচেয়ে ভালো কাজ করে। যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন তাদের ঝুঁকি নেই এমনটা না। তারাও ঝুঁকির মধ্যে আছেন। কেননা করোনা ভ্যাকসিন ৩০ শতাংশ মানুষের ক্ষেত্রে কম কার্যকরী হবে। বাকি ৮০ শতাংশ মানুষের ক্ষেত্রে ভালো ফল দিবে। তবে শুধু টিকা দিয়েই ১০০ শতাংশ বা ৯৯ দশমিক ৯ শতাংশ সুরক্ষিত থাকা যাবে না। সচেনতার কোনো বিকল্প নেই। আর

এক্ষেতে মাস্ক সবচেয়ে বেশি কার্যকরী ভূমিকা রাখবে।
এদিকে, সরকারি নির্দেশনা পাওয়ার পর করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে রাজশাহীজুড়ে অভিযান চালাচ্ছে স্থানীয় প্রশাসন। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার (১৫ মার্চ) দুপুরে মহানগরীর সাহেববাজারে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। রাজশাহী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সর্বসাধারণের মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে দীর্ঘ বিরতির পর ফের মাঠে নামানো হয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানের প্রথমদিনে আর্থিক সঙ্গতি নেই এমন ব্যক্তিদের মধ্যে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়। এর পাশাপাশি আর্থিক সঙ্গতি আছে, শিক্ষিত কিন্তু সচেতন নয় এমন মানুষকে স্বল্প পরিসরে নগদ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া এখন থেকে রাজশাহী নগরীসহ জেলার সব উপজেলায় মাস্ক পরিধান

নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানানো হয়েছে। রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকায় দিনে চারটি স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে বলেও জানিয়েছে রাজশাহী জেলা প্রশাসন।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল জলিল জানান, মানুষের মধ্যে মাস্ক পরিধান নিশ্চিতে সরকারি নির্দেশনায় ভ্রাম্যমাণ আদালত কাজ শুরু করেছেন। এটি অব্যাহত থাকবে। সবাইকে আরো সচেতন করতে সচেনতামূলক বিভিন্ন কর্মসূচি হতে নেয়া হয়েছে। করোনা টিকা নেওয়া হোক বা না হোক উভয় অবস্থাতেই সবাইকে বাড়ির বাইরে বের হলে মাস্ক পরিধান করতে হবে। না হলে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
তিনি আরো জানান, অনেক প্রতিষ্ঠান ‘নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ লিখা সংবলিত

ব্যানার টাঙ্গালেও সচেতন হচ্ছে না। এসব প্রতিষ্ঠানসহ ব্যবসায়ী সংগঠনগুলোর সঙ্গে দ্রুতই সভা করা হবে। এবং করোনা মোবাবিলায় সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মধ্যে দিয়ে রাজশাহীকে করোনামুক্ত রাখা হবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ডোনেট বাংলাদেশ'কে জানাতে ই-মেইল করুন- donetbd2010@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

ডোনেট বাংলাদেশ'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© 2021 সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। ডোনেট বাংলাদেশ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT