ভারতের সংসদে যা বললেন রাহুল গান্ধী – বর্ণমালা টেলিভিশন

ভারতের সংসদে যা বললেন রাহুল গান্ধী

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ | ৯:১১ 40 ভিউ
ভারতের বৈদেশিক নীতির অন্যতম বিষয় ছিল যে চীন এবং পাকিস্তানকে আলাদা রাখতে হবে। কিন্তু দুই প্রতিবেশী দেশকে একসঙ্গে নিয়ে এসেছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। যা দেশের মানুষের প্রতি সবথেকে বড় অপরাধ। বুধবার সংসদে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের ভাষণের প্রেক্ষিতে ধন্যবাদজ্ঞাপন প্রস্তাবে এমনই দাবি করলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। রাহুল বলেন, চীনের কাছে স্পষ্ট রূপরেখা আছে যে তারা কী করতে চায়। ওরা অত্যন্ত স্পষ্ট। মৌলিকভাবে ভারতের বৈদেশিক নীতির অন্যতম কৌশলগত নীতি ছিল যে চীন এবং পাকিস্তানকে আলাদা রাখতে হবে। কিন্তু এই নরেন্দ্র মোদী সরকারই চীন এবং পাকিস্তানকে একসঙ্গে নিয়ে এসেছে। বৈদেশিক নীতির ক্ষেত্রে বড়সড় ভুল করেছে মোদি সরকার। কোনও আকাশ-কুসুম ভাবনায় মেতে থাকবেন না। আমাদের সামনে যে শক্তি দাঁড়িয়ে আছে, সেটা হালকাভাবে নেবেন না। দেশের মানুষের প্রতি এটা আপনাদের সবথেকে বড় অপরাধ। চীনের যে পরিকল্পনা আছে, তার ভিত্তি তৈরি হয়েছে ডোকলাম এবং লাদাখে। যা দেশ হিসেবে ভারতের সামনে বড়সড় ঝুঁকি আমরা জম্মু ও কাশ্মীরে বড়সড় ভুল করেছি। আপনারা বৈদেশিক নীতির ক্ষেত্রে বড়সড় ভুল করেছেন। এই ভুল শোধরাতে হবে। আমরা সাংঘাতিক ভুল করেছি। আমাদের চীনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। আমি অত্যন্ত উদ্বিগ্ন যে আমার প্রিয় দেশ বিপদের মুখে দাঁড়িয়ে আছে। রাহুল গান্ধী বলেন, আমাদের দেশের মূলভিত্তির সঙ্গে ছেলেখেলা করছে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) এবং বিজেপি। তারা আমাদের দেশে মূলভিত্তিকে দুর্বল করে তুলছে। আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে সংযোগকে দুর্বল করে দিচ্ছে ওরা। বিভিন্ন ভাষার মধ্যে সংযোগ নষ্ট করে দিচ্ছে। একজনও ভারতীয় যুবক-যুবতী চাকরি না পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে দেশকে দুর্বল আরও করছে। ১০ বছর আগেও ভারতের যা অবস্থা ছিল, তার থেকেও বেশি দুর্বল হয়ে গিয়েছে। নিজেদের প্রশ্ন করুন। কেন প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে একজনও অতিথি আসেননি, সেই প্রশ্নটা নিজেদের করুন। অবাক হবেন না। নিজেদের প্রশ্ন করুন। আদতে বিষয়টা হচ্ছে যে ভারত আজ পুরোপুরি একা হয়ে গিয়েছে। চারিদিক থেকে ঘিরে রাখা হয়েছে। শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, নেপাল, মায়ানমার এবং চীনের দ্বারা ঘিরে আছে ভারত। আমরা দুর্বল হয়ে গিয়েছি। কংগ্রেস সংসদ সদস্য রাহুল আরও বলেন, দুটি ভারত তৈরি হয়ে গিয়েছে। একটি অত্যন্ত ধনীদের জন্য। যাঁদের প্রচুর টাকা, ক্ষমতা আছে। যাঁদের চাকরি চাই না। যাঁদের জল এবং বিদ্যুতের সংযোগ চাই না। অপর ভারত হচ্ছে গরিবদের জন্য। ধনী এবং গরিবদের মধ্যে বৈষম্য ক্রমশ বাড়ছে। তিনি আরও বলেন, আপনারা 'মেড ইন ইন্ডিয়া'-র কথা বলেন। কিন্তু এখন 'মেড ইন ইন্ডিয়া' হতেই পারবে না। বিষয়টা শেষ হয়ে গিয়েছে। কারণ 'মেড ইন ইন্ডিয়ায়' আদতে কারা আছেন? আছে ছোটো-মাঝারি শিল্প এবং অসংগঠিত ক্ষেত্র। যাদের আপনারা শেষ করে দিয়েছেন। তাই এখন 'মেড ইন ইন্ডিয়া' সম্ভবই নয়। রাহুল বলেন, রাষ্ট্রপতির ভাষণে বেকারত্ব নিয়ে একটাও শব্দ খরচ করা হয়নি। দেশের যুবপ্রজন্ম চাকরির জন্য হাপিত্যেশ করে বসে আছেন। আপনাদের সরকার তা দিতে পারেনি। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, হিন্দুস্তান টাইমস, এএনআই

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:



































শীর্ষ সংবাদ:
বেনাপোল সীমান্তে সচল পিস্তলসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রেফতার নির্মাণসামগ্রীর দাম চড়া, উন্নয়ন প্রকল্পে ধীরগতি কলম্বোতে কারফিউ জারি টিকে থাকার লড়াইয়ে ছক্কা হাকাতে পারবেন ইমরান খান? করোনায় আজও মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত কমেছে ‘ততক্ষণ খেলব যতক্ষণ না আমার চেয়ে ভালো কাউকে দেখব’ এবার ইয়েমেনে পাল্টা হামলা চালাল সৌদি জোট স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানি করেছে মোদি সরকার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়া নিয়ে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, এলাকা রণক্ষেত্র ইউক্রেনকে বিপুল ক্ষেপণাস্ত্র ও মেশিনগান দিয়েছে জার্মানি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩ ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাবের ‘লাল-সবুজের পতাকা বিশ্বজুড়ে আনবে একতা‘-শীর্ষক সভা বঙ্গবন্ধু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর নওহাঁটায় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন । ভূরুঙ্গামারীতে ব্যাপরোয়া অটোরিকশা কেরে নিল শিশুর ফাহিম এর প্রাণ ভূরুঙ্গামারী কিশোর গ‍্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ৬ তম রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ৫২ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-২ বেনাপোল স্থলপথে স্টুডেন্ট ভিসায় বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমন নিষেধ গেরিলা যোদ্ধা অপূর্ব