ঢাকা, Sunday 24 October 2021

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

বিশ্ব নেতাদের শুভেচ্ছা

প্রকাশিত : 09:17 AM, 27 March 2021 Saturday
96 বার পঠিত

| ডোনেট বিডি নিউজ ডেস্কঃ |

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিশ্ব নেতারা। ভিডিও বার্তার মাধ্যমে এই শুভেচ্ছা জানান তারা। এ উপলক্ষে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, জাপানের প্রেসিডেন্ট ইউশিহিদে সুগা, সৌদি বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজ, যুক্তরাজ্যের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ, যুবরাজ প্রিন্স চার্লস, পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইমরান খান, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান, জার্মানির প্রেসিডেন্ট, স্পেনের রাজা, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ্যান্টনি ব্লিংকেন ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন। এছাড়া ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট ডিকসন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। খবর বাংলানিউজ ও অনলাইনের।

জাতিসংঘের মহাসচিব ॥ বিশ্ব দরবারে

বাংলাদেশ বড় ভূমিকা রাখছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। শুক্রবার স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশের জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন। আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, বাংলাদেশের মানুষ বিগত পাঁচ দশকে সামাজিক অগ্রগতিতে বড় ভূমিকা রেখেছেন। তাদের এ উন্নতির জন্য আমি তাদের অভিনন্দন জানাই। আরও অভিনন্দন জানাতে চাই বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ হওয়ায়। তিনি বলেন, বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ বড় ভূমিকা রাখছে। জাতিসংঘের শান্তি রক্ষা মিশনে সবচেয়ে বেশি সদস্য বাংলাদেশের। বাংলাদেশ লাখো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছে। এজন্য তাদের ধন্যবাদ।

অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির উজ্জ্বল উদাহরণ বাংলাদেশ- বাইডেন ॥ প্রায় দশ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে বিশ্ব মানবতার এক উৎকৃষ্ট দৃষ্টান্ত দেখিয়েছে বাংলাদেশ। এছাড়া

অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির উজ্জ্বল উদাহরণ হিসেবে বাংলাদেশ এখন পরিচিত। শুক্রবার স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে এক ভিডিও বার্তায় শুভেচ্ছা জানাতে এসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ কথা বলেন। বাইডেন আশা প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশ বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তন রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। জলবায়ু পরিবর্তনের ইস্যু নিয়ে তার প্রশাসন বাংলাদেশকে সবরকম সাহায্য করবে।

ভারতের রাষ্ট্রপতির শুভেচ্ছা ॥ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদের কাছে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি শ্রী রামনাথ কোবিন্দ। শুক্রবার ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন এ তথ্য জানিয়েছে। ভারতের রাষ্ট্রপতি বার্তায় বলেন, আপনাদের জাতীয় দিবস উপলক্ষে ভারতের জনগণ এবং আমার পক্ষ থেকে মহামহিম আপনাকে, আপনার সরকার

এবং বাংলাদেশের জনগণকে ঊষ্ণ শুভেচ্ছা এবং আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। তিনি বলেন, ভারত ও বাংলাদেশ আমাদের ৫০ বছরের অনুকরণীয় ও অনন্য দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উদযাপন করছে। উভয় সরকারের শক্তিশালী রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি বিভিন্ন খাতে আমাদের বহুমুখী সহযোগিতা জোরদার করেছে। আমি আরও আনন্দিত যে, মুক্তিযুদ্ধে আপনাদের বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের পাশাপাশি বিংশ শতাব্দীর অন্যতম মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের ফলে এই বছরটি ব্যাপকতা লাভ করেছে। আমাদের সরকারও আপনার সরকারের সঙ্গে একযোগে এবং পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছে। আমি বিশ্বাস করি যে, এসব যুগান্তকারী যৌথ স্মারক অনুষ্ঠান আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও জোরদার করবে। ভারতের রাষ্ট্রপতি বলেন,

অনুগ্রহপূর্বক আপনার ব্যক্তিগত সুস্থতার পাশাপাশি বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতিম জনগণের সমৃদ্ধি ও অগ্রগতির জন্য আমার সর্বোচ্চ বিবেচনার নিশ্চয়তা এবং আমার শুভেচ্ছা গ্রহণ করুন।

পুতিনের শুভেচ্ছা ॥ বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন অসাধারণ নেতা ছিলেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে পাঠানো এক বার্তায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন একথা বলেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকারের ১০ দিনের অনুষ্ঠানমালার নবম দিনে বৃহস্পতিবার জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডের অনুষ্ঠানে পুতিনের এই বার্তা প্রচার করা হয়। ওই বার্তায় পুতিন বলেন, ‘স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালনের সময়ে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীও পালন করছে।’ বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যে গভীর বন্ধুত্বপূর্ণ

সম্পর্কের কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি নিশ্চিত যে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তার জন্য যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুই দেশের গঠনমূলক সহযোগিতা আরও বেশি বৃদ্ধি পাবে।’

বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম অর্থনৈতিক উন্নয়নশীল দেশ- বরিস জনসন ॥ বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম অর্থনৈতিক উন্নয়নশীল দেশ বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। শুক্রবার বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে দেশটির জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন। বরিস জনসন বলেন, বাংলাদেশ বর্তমানে অর্থনৈতিক উন্নয়নশীল রাষ্ট্র। আমরা বাংলাদেশের সমৃদ্ধির স্বপ্নের সঙ্গে থাকতে চাই। তিনি বলেন, ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু ১০ ডাউনিং স্ট্রীটে (যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়) এসেছিলেন। যা আমাদের দু’দেশের মধ্যে বন্ধুত্বের সূচনা ছিল। গত

৫০ বছরে এ বন্ধুত্ব আরও দৃঢ় হয়েছে। বরিস জনসন বলেন, যুক্তরাজ্যে ছয় লাখের বেশি বাংলাদেশী রয়েছে। তারা যুক্তরাজ্যের উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশের জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, এ সময়ে বাংলাদেশ যা অর্জন করেছে তা অসাধারণ।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ॥ মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশের জনগণকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এক ভিডিও বার্তায় এই অভিনন্দন জানান। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকারের ১০ দিনের অনুষ্ঠানমালার শেষদিনে শুক্রবার জাতীয়

প্যারেড গ্রাউন্ডের অনুষ্ঠানে এরদোগানের এই ভিডিও বার্তা প্রচার করা হয়। বাংলাদেশ সফরে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে এরদোগান বলেন, ‘কোভিড-১৯ মহামারী যা সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। এ জন্য আমার পক্ষে এই আমন্ত্রণ গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। তবে যদি পরিস্থিতি ভাল হয়, বাংলাদেশ সফরের ইচ্ছা আমার আছে।’ তিনি বলেন, ‘দুই দেশের জনগণের মধ্যে ভ্রাতৃত্বমূলক অনুভূতি আমাদের সম্পর্ককে আরও উন্নত করার জন্য ইচ্ছাশক্তিকে দৃঢ় করবে।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আপনার পিতা, বাংলাদেশের প্রথম প্রেসিডেন্ট শেখ মুজিবুর রহমান জাতির জন্য সংগ্রাম ও ত্যাগের মাধ্যমে বিংশ শতাব্দীর বিখ্যাত রাষ্ট্রনায়কদের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন। আমি বিশ্বাস করি,

বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তীর বছরে আমাদের সম্পর্ক ও সহযোগিতা আরও গভীর হবে।’

আমিরাতের শুভেচ্ছা ॥ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশের মানুষকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের চার্জ দ্যা এ্যাফেয়ার্স আব্দুল্লা আলী আল-হামুদী। শুক্রবার বাংলাদেশের অফিসিয়াল টুইটার আইডি থেকে এক টুইট বার্তায় বাংলা ভাষায় এই অভিনন্দন বার্তা জানান তিনি। এসময় টুইট বার্তায় বঙ্গবন্ধুর কারাগারের রোজনামচার ইংরেজী ভার্সন ‘প্রিজন ডায়েরি’ আব্দুল্লা আলী আল-হামুদী হাতে ধরে একটি ছবিও পোস্ট করেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ডোনেট বাংলাদেশ'কে জানাতে ই-মেইল করুন- donetbd2010@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

ডোনেট বাংলাদেশ'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© 2021 সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। ডোনেট বাংলাদেশ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT