ঢাকা, Sunday 24 October 2021

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

বিদেশি মুদ্রা ভাঙিয়ে জাল টাকা দিতো ওরা

প্রকাশিত : 09:48 AM, 11 March 2021 Thursday
41 বার পঠিত

মোহাম্মদ রাছেল রানা | ডোনেট বাংলাদেশ নিউজ ডেক্স :-

ওদের টার্গেট প্রবাসী বাংলাদেশিরা। ওরা প্রবাসীদের বিদেশি মুদ্রা ভাঙিয়ে জাল টাকা দিতো। দীর্ঘদিন ধরে কৌশলে ওরা প্রতারণা করে আসছিল। এরকমই একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, মোঃ আবুল বাশার ওরফে নিরব (৪৩) ও আব্দুল করিম (৪০)। গ্রেফতারকৃতরা ভোলার বাসিন্দা। সোমবার রাতে রাজধানীর বনানী এলাকা থেকে গ্রেফতারের পর তাদের কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকার জাল নোট উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-৩ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সহকারী পুলিশ সুপার ফারজানা হক জানান, গ্রেফতারকৃতরা শুধু জাল টাকার কারবারই নয়। বরং নানা ধরনের প্রতারণারও সঙ্গে জড়িত তারা। তিনি জানান, র‌্যাব-৩ গোয়েন্দা সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, বনানী

এলাকায় কয়েকজন বিদেশি নোট ভাঙাতে আসা লোকজনদের বিভিন্নভাবে প্রতারিত করে কৌশলে জাল টাকা দিচ্ছে।

ওই ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে সোমবার রাতে র‌্যাব-৩ এর দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় জাল টাকার কারবারি চক্রের ওই দুই সদস্যকে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৩০টি বাংলাদেশি ১০০০ টাকার জাল নোট, একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানান, তারা সংঘবদ্ধ জাল নোটের কারবারি ছাড়াও চোরাকারবারি ও প্রতারণামূলক কাজে জড়িত। তারা দীর্ঘদিন ধরেই প্রবাস থেকে আসা সহজ সরল বাংলাদেশিদের কাছ থেকে বিদেশি মুদ্রা ভাঙানোর নাম করে কৌশলে জাল টাকা দিতো। এভাবে অনেক মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে তারা।

র‌্যাব-৩ এর

এএসপি (সিপিসি-১) মোঃ বশির আহমেদ জানান, এরা মূলত দুইভাবে জাল টাকার কারবার করে থাকে। প্রথমত, তাদের টার্গেটে বিদেশি মুদ্রা ভাঙাতে চায় এমন ব্যক্তি। যেমন প্রবাসী বাংলাদেশি। তাদের কাছে বিদেশি মুদ্রা থাকে। গুলশান বনানী, বাড্ডা ও তেজগাঁও এলাকার যারা বিদেশি মুদ্রা ভাঙাতে চায় তাদের টার্গেট করে কিছু ভাল টাকার সঙ্গে জাল টাকা দিয়ে বিদেশি মুদ্রা নিয়ে সটকে পড়তো। দ্বিতীয়ত, পণ্য কেনা-বেচার ক্ষেত্রে।

সাধারণ ও অশিক্ষিত দোকানিদের টার্গেট করে কোনো পণ্য ক্রয় করে জাল টাকা চালিয়ে দিতো। আটকরা এই চক্রের প্রধান ও জাল টাকা তৈরির কারখানা সম্পর্কে সঠিক কোনো তথ্য দিচ্ছে না। চক্রটির সঙ্গে জড়িত অন্যদের আটক করতে

আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আমরা পেয়েছি। সেগুলো যাচাই করে অভিযান পরিচালনা করা হবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ডোনেট বাংলাদেশ'কে জানাতে ই-মেইল করুন- donetbd2010@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

ডোনেট বাংলাদেশ'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© 2021 সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। ডোনেট বাংলাদেশ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT