বান্দরবানে কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ কেন্দ্র চালু - বর্ণমালা টেলিভিশন

বান্দরবানে ক্ষুদ্র চাষিদের সুবিধার্থে সদর উপজেলার শ্যারণ পাড়ায় কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়েছে। এতে এই অঞ্চলের ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিদের কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ এবং তা নির্দিষ্ট সময়ে চা কারখানায় পাঠানো সহজ হবে। বজায় থাকবে কাঁচা পাতা থেকে তৈরিকৃত চায়ের মান ও গুণাগুণ।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের অর্থায়নে নির্মিত ‘সম্প্রীতি লিফ কালেকশন সেন্টার’ নামের এই কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়। বাংলাদেশ চা বোর্ডের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেনারেল অফিসার কমান্ডিং ২৪ পদাতিক ডিভিশন ও চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো. সাইফুল আবেদীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত

ছিলেন বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেজর জেনারেল সাইফুল আবেদীন পার্বত্য এলাকার বিভিন্ন নৃগোষ্ঠী চা চাষি এবং পার্বত্য অঞ্চলসহ বাংলাদেশের সমৃদ্ধি কামনা করেন। এছাড়াও বান্দরবান পার্বত্য এলাকায় নৃগোষ্ঠী চা চাষিদের জন্য ভবিষ্যতেও বিভিন্ন সহায়তার আশ্বাস দেন।

বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, সম্প্রীতি লিফ কালেকশন সেন্টার চালুর ফলে ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিদের কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ ও তা নির্দিষ্ট সময়ে চা কারখানায় পাঠানো সহজ হবে। এতে কাঁচা পাতা থেকে তৈরিকৃত চায়ের মান ও গুণাগুণ বজায় থাকবে। বান্দরবানে উৎপাদিত চা-কে ব্যাপক পরিচিতির জন্য স্পেশাল চা হিসেবে ‘বান্দরবান টি’ নামে ব্র্যান্ডিং করার বিষয়ে

চা বোর্ডের পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি। এছাড়া বান্দরবানের ক্ষুদ্র পর্যায়ের চা চাষে বাংলাদেশ চা বোর্ডের চলমান সহায়তা সবসময় অব্যাহত থাকবে বলে চাষিদের আশ্বস্ত করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খন্দকার জিয়াউল হক, বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ড. মোহাম্মদ আলী, বাংলাদেশ চা বোর্ডের উপ-পরিচালক (পরিকল্পনা) জনাব মুনির আহমদ, বান্দরবান চা চাষি কল্যাণ সমবায় সমিতির নেতৃবৃন্দসহ ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিবৃন্দ, বান্দরবানের বিভিন্ন মৌজার হেডম্যান-কারবারী ও গণমাধ্যম কর্মীরা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ চা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত সিএইচটি প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক সুমন সিকদার।

বান্দরবানে ক্ষুদ্র চাষিদের সুবিধার্থে সদর উপজেলার শ্যারণ পাড়ায় কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়েছে। এতে এই অঞ্চলের ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিদের কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ এবং তা নির্দিষ্ট সময়ে চা কারখানায় পাঠানো সহজ হবে। বজায় থাকবে কাঁচা পাতা থেকে তৈরিকৃত চায়ের মান ও গুণাগুণ।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের অর্থায়নে নির্মিত ‘সম্প্রীতি লিফ কালেকশন সেন্টার’ নামের এই কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়। বাংলাদেশ চা বোর্ডের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেনারেল অফিসার কমান্ডিং ২৪ পদাতিক ডিভিশন ও চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো. সাইফুল আবেদীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত

ছিলেন বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেজর জেনারেল সাইফুল আবেদীন পার্বত্য এলাকার বিভিন্ন নৃগোষ্ঠী চা চাষি এবং পার্বত্য অঞ্চলসহ বাংলাদেশের সমৃদ্ধি কামনা করেন। এছাড়াও বান্দরবান পার্বত্য এলাকায় নৃগোষ্ঠী চা চাষিদের জন্য ভবিষ্যতেও বিভিন্ন সহায়তার আশ্বাস দেন।

বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, সম্প্রীতি লিফ কালেকশন সেন্টার চালুর ফলে ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিদের কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ ও তা নির্দিষ্ট সময়ে চা কারখানায় পাঠানো সহজ হবে। এতে কাঁচা পাতা থেকে তৈরিকৃত চায়ের মান ও গুণাগুণ বজায় থাকবে। বান্দরবানে উৎপাদিত চা-কে ব্যাপক পরিচিতির জন্য স্পেশাল চা হিসেবে ‘বান্দরবান টি’ নামে ব্র্যান্ডিং করার বিষয়ে

চা বোর্ডের পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি। এছাড়া বান্দরবানের ক্ষুদ্র পর্যায়ের চা চাষে বাংলাদেশ চা বোর্ডের চলমান সহায়তা সবসময় অব্যাহত থাকবে বলে চাষিদের আশ্বস্ত করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খন্দকার জিয়াউল হক, বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ড. মোহাম্মদ আলী, বাংলাদেশ চা বোর্ডের উপ-পরিচালক (পরিকল্পনা) জনাব মুনির আহমদ, বান্দরবান চা চাষি কল্যাণ সমবায় সমিতির নেতৃবৃন্দসহ ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিবৃন্দ, বান্দরবানের বিভিন্ন মৌজার হেডম্যান-কারবারী ও গণমাধ্যম কর্মীরা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ চা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত সিএইচটি প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক সুমন সিকদার।

বান্দরবানে কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ কেন্দ্র চালু

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ২০ নভেম্বর, ২০২১ | ৬:৩১ 77 ভিউ
বান্দরবানে ক্ষুদ্র চাষিদের সুবিধার্থে সদর উপজেলার শ্যারণ পাড়ায় কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়েছে। এতে এই অঞ্চলের ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিদের কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ এবং তা নির্দিষ্ট সময়ে চা কারখানায় পাঠানো সহজ হবে। বজায় থাকবে কাঁচা পাতা থেকে তৈরিকৃত চায়ের মান ও গুণাগুণ। মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের অর্থায়নে নির্মিত ‘সম্প্রীতি লিফ কালেকশন সেন্টার’ নামের এই কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়। বাংলাদেশ চা বোর্ডের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেনারেল অফিসার কমান্ডিং ২৪ পদাতিক ডিভিশন ও চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো. সাইফুল আবেদীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন

বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেজর জেনারেল সাইফুল আবেদীন পার্বত্য এলাকার বিভিন্ন নৃগোষ্ঠী চা চাষি এবং পার্বত্য অঞ্চলসহ বাংলাদেশের সমৃদ্ধি কামনা করেন। এছাড়াও বান্দরবান পার্বত্য এলাকায় নৃগোষ্ঠী চা চাষিদের জন্য ভবিষ্যতেও বিভিন্ন সহায়তার আশ্বাস দেন। বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, সম্প্রীতি লিফ কালেকশন সেন্টার চালুর ফলে ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিদের কাঁচা চা পাতা সংগ্রহ ও তা নির্দিষ্ট সময়ে চা কারখানায় পাঠানো সহজ হবে। এতে কাঁচা পাতা থেকে তৈরিকৃত চায়ের মান ও গুণাগুণ বজায় থাকবে। বান্দরবানে উৎপাদিত চা-কে ব্যাপক পরিচিতির জন্য স্পেশাল চা হিসেবে ‘বান্দরবান টি’ নামে ব্র্যান্ডিং করার বিষয়ে চা

বোর্ডের পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি। এছাড়া বান্দরবানের ক্ষুদ্র পর্যায়ের চা চাষে বাংলাদেশ চা বোর্ডের চলমান সহায়তা সবসময় অব্যাহত থাকবে বলে চাষিদের আশ্বস্ত করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেড কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খন্দকার জিয়াউল হক, বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ড. মোহাম্মদ আলী, বাংলাদেশ চা বোর্ডের উপ-পরিচালক (পরিকল্পনা) জনাব মুনির আহমদ, বান্দরবান চা চাষি কল্যাণ সমবায় সমিতির নেতৃবৃন্দসহ ক্ষুদ্রায়তন চা চাষিবৃন্দ, বান্দরবানের বিভিন্ন মৌজার হেডম্যান-কারবারী ও গণমাধ্যম কর্মীরা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ চা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত সিএইচটি প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক সুমন সিকদার।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ