বাগমারায় চলতি মৌসুমে পেঁয়াজ চাষে ব্যস্ত কৃষকরা – বর্ণমালা টেলিভিশন

বাগমারায় চলতি মৌসুমে পেঁয়াজ চাষে ব্যস্ত কৃষকরা

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৬ জানুয়ারি, ২০২২ | ৯:২৪ 59 ভিউ
রাজশাহীর বাগমারায় চলতি মৌসুমে পেঁয়াজ চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। বিগত কয়েক বছর পিয়াজ চাষ করে কৃষকরা তেমন লাভ করতে পারেনি। তবে এবার কৃষকরা সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবে বলে আশায় বুক বেঁধে ছিল। কিন্তু এবারও পেঁয়াজের দাম পড়ে যাওয়ায় তাদের সে আশায় গুড়েবালি হতে চলেছে। তারপর এবার লক্ষমাত্রার চেয়ে বেশি জমিতে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে বলে কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে।জানা গেছে, বাগমারার তাহেরপুরের পেঁয়াজের দেশ জুড়ে খ্যাতি রয়েছে। এই হাটের পিয়াজ বিদেশেও রপ্তানী হয়ে থাকে। মূলত তাহেরপুর হাটে পেঁয়াজ রপ্তানীর উদ্দেশ্যেই এলাকার কৃষকরা পেঁয়াজ উৎপাদন করে থাকে। স্থানীয় কৃষকরা দুই মৌসুমেই পেঁয়াজ উৎপাদন করে থাকে। রবি মৌসুমের পেঁয়াজকে সেচ পিয়াজ বলে। যা কার্তিক মাসে রোপন করা হয়। এছাড়া দানা বীজ ফেলে চারা গাছ করে পরে সেই চারা রোপনের মাধ্যমে যে পেঁয়াজ চাষ করা হয় তাকে আল পেয়াজ বলে।এই পিয়াজ সাধারণত কার্তিকের শেষে আগ্রহায়ন পৌষ মাসে চাষ করা হয়। বর্তমানে এই পেঁয়াজ রোপনেই কৃষক উঠে পড়ে লেগেছে। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানাগেছে, বাগমারায় এবার ৪ হাজার ৪৫ হেক্টর জমিতে আল পেঁয়াজ রোপনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে অনুকূল আবহাওয়ার কারণে এবার পেঁয়াজ চাষ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ঘুরে দেখা গেছে বর্তমানে সেখানে সেচ পেঁয়াজে বাজার ভরপুর। মানভেদে এই পেঁয়াজ ৮০০ থেকে ১০০০ টাকা মন দরে বিক্রি হচ্ছে। মাড়িয়ার কৃষক লুৎফর রহমান জানান, এই দরে পেঁয়াজ বিক্রি করে কোন লাভ হবে না। এতে তার খরচের টাকা তোলা কষ্টকর হয়ে পড়বে। তারপরও কৃষকদের পেঁয়াজ চাষ করতে হচ্ছে।মধ্যদৌলতপুর গ্রামের কৃষক নাজিম উদ্দীন জানান, তিনি এবার ১৫ কাঠা জমিতে আল পেঁয়াজ রোপন করেছেন। প্রতি কাঠায় তার বীজ, সার সেচ, কীটনাশক ও শ্রমিক মিলে তার খরচ হয়েছে প্রায় ২ হাজার টাকা। তার মতে এখানে আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে প্রতি কাঠায় ৪ মণ হারে পেঁয়াজ উৎপাদন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বর্তমান বাজারে পেঁয়াজের দর প্রতি কেজি ২৫ থেকে ৩০ টাকা। মাধাইমুড়ি গ্রামের কৃষক সামসুদ্দীন মন্ডল, ওমর আলী কাজি সহ সাইফুল ইসলামের মতে, আল পেঁয়াজ উঠার সময় পেঁয়াজের বাজার দর বর্তমানের চেয়ে বৃদ্ধি না পেলে তাদের ব্যাপক লোকসান গুনতে হবে উপজেলা কৃষি অফিসার আব্দুর রাজ্জাক জানান, পেঁয়াজ চাষের জমি ও আবহাওয়া বেশ অনুকূল থাকায় এখানে পেঁয়াজের বাম্পার ফলন হয়েছে। এই পেঁয়াজ মানে ভাল হওয়ায় দেশের বিভিন্ন জেলায় চাহিদাও রয়েছে। আগামীতে পেঁয়াজের দাম বাড়ার সম্ভবনা রয়েছে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:



































শীর্ষ সংবাদ:
বেনাপোল সীমান্তে সচল পিস্তলসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রেফতার নির্মাণসামগ্রীর দাম চড়া, উন্নয়ন প্রকল্পে ধীরগতি কলম্বোতে কারফিউ জারি টিকে থাকার লড়াইয়ে ছক্কা হাকাতে পারবেন ইমরান খান? করোনায় আজও মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত কমেছে ‘ততক্ষণ খেলব যতক্ষণ না আমার চেয়ে ভালো কাউকে দেখব’ এবার ইয়েমেনে পাল্টা হামলা চালাল সৌদি জোট স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানি করেছে মোদি সরকার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়া নিয়ে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, এলাকা রণক্ষেত্র ইউক্রেনকে বিপুল ক্ষেপণাস্ত্র ও মেশিনগান দিয়েছে জার্মানি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩ ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাবের ‘লাল-সবুজের পতাকা বিশ্বজুড়ে আনবে একতা‘-শীর্ষক সভা বঙ্গবন্ধু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর নওহাঁটায় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন । ভূরুঙ্গামারীতে ব্যাপরোয়া অটোরিকশা কেরে নিল শিশুর ফাহিম এর প্রাণ ভূরুঙ্গামারী কিশোর গ‍্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ৬ তম রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ৫২ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-২ বেনাপোল স্থলপথে স্টুডেন্ট ভিসায় বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমন নিষেধ গেরিলা যোদ্ধা অপূর্ব