বঙ্গবন্ধুর নামে তুরস্কের সর্ববৃহৎ পার্ক - বর্ণমালা টেলিভিশন

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে একটি পার্ক উদ্বোধন করা হয়েছে। ‘বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল পার্ক’ নামের উদ্যানটি দেশটির সর্ববৃহৎ এবং এটি রাজধানীর কাচোরায় অবস্থিত। এর আয়তন ৩৩ হাজার স্কয়ার মিটার। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে এই পার্ক নির্মাণ করা হয়েছে। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫টায় এই পার্ক উদ্বোধন করা হয়। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলামের প্রচেষ্টায় পার্কটি নির্মাণ করে তুরস্ক।

.

এ উপলক্ষে পার্ক এলাকায় একটি সভার আয়োজন করা হয়। এতে অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, আঙ্কারার গভর্নর ওয়াসিপ শাহীন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, আঙ্কারার মেয়র মনসুর ইয়াভাস,

আঙ্কারার ডেপুটি মেয়র সেলিম সিরপান লৌ, তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ মান্নান প্রমুখ।

পার্কটি ঘুরে দেখা গেছে, কয়েকটি পৃথক মাঠ নিয়ে পুরো প্রাঙ্গণটি কয়েকটি ভাগে বিভক্ত। প্রতিটি মাঠকে তার দিয়ে বিশেষ বেড়া দেওয়া হয়েছে। তাতে ফুটবল মাঠ, বাস্কেট বল মাঠ, ব্যাডমিন্টন মাঠ, ব্যায়ামাগার, শিশু কর্নার ও ওয়াকওয়েসহ সব ধরনের খেলার ব্যবস্থা রয়েছে। রাতে খেলার জন্য পার্কে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পার্কটিকে সবুজায়ন করতে নতুন করে গাছ লাগানো হয়েছে।

.
এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের এবং আনন্দের। আজ তুরস্কে বঙ্গবন্ধুর নামে সর্ববৃহৎ পার্ক উদ্বোধন করা হয়েছে। আমরা দুই দেশ এবং দুই সিটি

করপোরেশন একত্রে কাজ করবো।’ এ সময় তিনি আঙ্কারার মেয়রকে ঢাকায় আমন্ত্রণ জানান।

সরেজমিন দেখা গেছে, উদ্বোধনের পর শিশুদের পদচারণায় পার্কটি মুখরিত হয়ে ওঠে। কনকনে শীতের মাঝেও প্রতিটি মাঠে খেলাধুলা করছে শিশুরা। হাঁটাহাঁটি করছেন আশপাশের বৃদ্ধারা। মাঠটি উন্মুক্ত করে দেওয়ায় বেশ খুশি স্থানীয়রা।

.
এর আগে সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় আঙ্কারার বুলভার্ডের চার রাস্তার মোড়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি আবক্ষ ভাস্কর্য উদ্বোধন করা হয়।

তার আগে আঙ্কারার মেয়র মনসুর ইয়াবাসের সঙ্গে তার কার্যালয়ে বৈঠক করেন আতিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ‘আজ আমাদের জন্য একটি গর্বের দিন। তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় আমরা বঙ্গবন্ধুর একটি আবক্ষ ভাস্কর্য স্থাপন করতে

পেরেছি। এটি দেশের বাইরে জাতি হিসেবে বাংলাদেশের মান উজ্জ্বল করেছে।’

.
মেয়র আরও জানান, ঢাকার বনানী এলাকায় তুরস্কের জাতির জনকের নামে কামাল আতাতুর্ক সরণি রয়েছে। সড়ক সংলগ্ন পার্কটি কামাল আতাতুর্কের নামে নামকরণের সিদ্ধান্ত হয়েছে সম্প্রতি। আমরা তুরস্ককে আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তারা যখন সময় দেবে তখন সেটি উদ্বোধন করা হবে।

এর আগে রবিবার (১২ ডিসেম্বর) মেয়র আতিক তুরস্কের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় ইস্তান্বুল থেকে আঙ্কারার উদ্দেশে রওনা দেন। গত ১০ ডিসেম্বর ঢাকা থেকে তুরস্কে যান তিনি। ১৪ ডিসেম্বর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে একটি পার্ক উদ্বোধন করা হয়েছে। ‘বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল পার্ক’ নামের উদ্যানটি দেশটির সর্ববৃহৎ এবং এটি রাজধানীর কাচোরায় অবস্থিত। এর আয়তন ৩৩ হাজার স্কয়ার মিটার। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে এই পার্ক নির্মাণ করা হয়েছে। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫টায় এই পার্ক উদ্বোধন করা হয়। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলামের প্রচেষ্টায় পার্কটি নির্মাণ করে তুরস্ক।

.

এ উপলক্ষে পার্ক এলাকায় একটি সভার আয়োজন করা হয়। এতে অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, আঙ্কারার গভর্নর ওয়াসিপ শাহীন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, আঙ্কারার মেয়র মনসুর ইয়াভাস,

আঙ্কারার ডেপুটি মেয়র সেলিম সিরপান লৌ, তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ মান্নান প্রমুখ।

পার্কটি ঘুরে দেখা গেছে, কয়েকটি পৃথক মাঠ নিয়ে পুরো প্রাঙ্গণটি কয়েকটি ভাগে বিভক্ত। প্রতিটি মাঠকে তার দিয়ে বিশেষ বেড়া দেওয়া হয়েছে। তাতে ফুটবল মাঠ, বাস্কেট বল মাঠ, ব্যাডমিন্টন মাঠ, ব্যায়ামাগার, শিশু কর্নার ও ওয়াকওয়েসহ সব ধরনের খেলার ব্যবস্থা রয়েছে। রাতে খেলার জন্য পার্কে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পার্কটিকে সবুজায়ন করতে নতুন করে গাছ লাগানো হয়েছে।

.
এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের এবং আনন্দের। আজ তুরস্কে বঙ্গবন্ধুর নামে সর্ববৃহৎ পার্ক উদ্বোধন করা হয়েছে। আমরা দুই দেশ এবং দুই সিটি

করপোরেশন একত্রে কাজ করবো।’ এ সময় তিনি আঙ্কারার মেয়রকে ঢাকায় আমন্ত্রণ জানান।

সরেজমিন দেখা গেছে, উদ্বোধনের পর শিশুদের পদচারণায় পার্কটি মুখরিত হয়ে ওঠে। কনকনে শীতের মাঝেও প্রতিটি মাঠে খেলাধুলা করছে শিশুরা। হাঁটাহাঁটি করছেন আশপাশের বৃদ্ধারা। মাঠটি উন্মুক্ত করে দেওয়ায় বেশ খুশি স্থানীয়রা।

.
এর আগে সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় আঙ্কারার বুলভার্ডের চার রাস্তার মোড়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি আবক্ষ ভাস্কর্য উদ্বোধন করা হয়।

তার আগে আঙ্কারার মেয়র মনসুর ইয়াবাসের সঙ্গে তার কার্যালয়ে বৈঠক করেন আতিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ‘আজ আমাদের জন্য একটি গর্বের দিন। তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় আমরা বঙ্গবন্ধুর একটি আবক্ষ ভাস্কর্য স্থাপন করতে

পেরেছি। এটি দেশের বাইরে জাতি হিসেবে বাংলাদেশের মান উজ্জ্বল করেছে।’

.
মেয়র আরও জানান, ঢাকার বনানী এলাকায় তুরস্কের জাতির জনকের নামে কামাল আতাতুর্ক সরণি রয়েছে। সড়ক সংলগ্ন পার্কটি কামাল আতাতুর্কের নামে নামকরণের সিদ্ধান্ত হয়েছে সম্প্রতি। আমরা তুরস্ককে আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তারা যখন সময় দেবে তখন সেটি উদ্বোধন করা হবে।

এর আগে রবিবার (১২ ডিসেম্বর) মেয়র আতিক তুরস্কের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় ইস্তান্বুল থেকে আঙ্কারার উদ্দেশে রওনা দেন। গত ১০ ডিসেম্বর ঢাকা থেকে তুরস্কে যান তিনি। ১৪ ডিসেম্বর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর নামে তুরস্কের সর্ববৃহৎ পার্ক

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৩ ডিসেম্বর, ২০২১ | ১১:৩২ 76 ভিউ
তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে একটি পার্ক উদ্বোধন করা হয়েছে। ‘বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল পার্ক’ নামের উদ্যানটি দেশটির সর্ববৃহৎ এবং এটি রাজধানীর কাচোরায় অবস্থিত। এর আয়তন ৩৩ হাজার স্কয়ার মিটার। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে এই পার্ক নির্মাণ করা হয়েছে। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫টায় এই পার্ক উদ্বোধন করা হয়। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলামের প্রচেষ্টায় পার্কটি নির্মাণ করে তুরস্ক। . এ উপলক্ষে পার্ক এলাকায় একটি সভার আয়োজন করা হয়। এতে অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, আঙ্কারার গভর্নর ওয়াসিপ শাহীন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, আঙ্কারার মেয়র মনসুর

ইয়াভাস, আঙ্কারার ডেপুটি মেয়র সেলিম সিরপান লৌ, তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ মান্নান প্রমুখ। পার্কটি ঘুরে দেখা গেছে, কয়েকটি পৃথক মাঠ নিয়ে পুরো প্রাঙ্গণটি কয়েকটি ভাগে বিভক্ত। প্রতিটি মাঠকে তার দিয়ে বিশেষ বেড়া দেওয়া হয়েছে। তাতে ফুটবল মাঠ, বাস্কেট বল মাঠ, ব্যাডমিন্টন মাঠ, ব্যায়ামাগার, শিশু কর্নার ও ওয়াকওয়েসহ সব ধরনের খেলার ব্যবস্থা রয়েছে। রাতে খেলার জন্য পার্কে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পার্কটিকে সবুজায়ন করতে নতুন করে গাছ লাগানো হয়েছে। . এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের এবং আনন্দের। আজ তুরস্কে বঙ্গবন্ধুর নামে সর্ববৃহৎ পার্ক উদ্বোধন করা হয়েছে। আমরা দুই দেশ এবং দুই

সিটি করপোরেশন একত্রে কাজ করবো।’ এ সময় তিনি আঙ্কারার মেয়রকে ঢাকায় আমন্ত্রণ জানান। সরেজমিন দেখা গেছে, উদ্বোধনের পর শিশুদের পদচারণায় পার্কটি মুখরিত হয়ে ওঠে। কনকনে শীতের মাঝেও প্রতিটি মাঠে খেলাধুলা করছে শিশুরা। হাঁটাহাঁটি করছেন আশপাশের বৃদ্ধারা। মাঠটি উন্মুক্ত করে দেওয়ায় বেশ খুশি স্থানীয়রা। . এর আগে সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় আঙ্কারার বুলভার্ডের চার রাস্তার মোড়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি আবক্ষ ভাস্কর্য উদ্বোধন করা হয়। তার আগে আঙ্কারার মেয়র মনসুর ইয়াবাসের সঙ্গে তার কার্যালয়ে বৈঠক করেন আতিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ‘আজ আমাদের জন্য একটি গর্বের দিন। তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় আমরা বঙ্গবন্ধুর একটি আবক্ষ ভাস্কর্য স্থাপন

করতে পেরেছি। এটি দেশের বাইরে জাতি হিসেবে বাংলাদেশের মান উজ্জ্বল করেছে।’ . মেয়র আরও জানান, ঢাকার বনানী এলাকায় তুরস্কের জাতির জনকের নামে কামাল আতাতুর্ক সরণি রয়েছে। সড়ক সংলগ্ন পার্কটি কামাল আতাতুর্কের নামে নামকরণের সিদ্ধান্ত হয়েছে সম্প্রতি। আমরা তুরস্ককে আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তারা যখন সময় দেবে তখন সেটি উদ্বোধন করা হবে। এর আগে রবিবার (১২ ডিসেম্বর) মেয়র আতিক তুরস্কের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় ইস্তান্বুল থেকে আঙ্কারার উদ্দেশে রওনা দেন। গত ১০ ডিসেম্বর ঢাকা থেকে তুরস্কে যান তিনি। ১৪ ডিসেম্বর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ