ঢাকা, Saturday 18 September 2021

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

ফের অভিশংসনের শিকার ট্রাম্প

প্রকাশিত : 10:58 AM, 15 January 2021 Friday
61 বার পঠিত

রাছেল রানা | বগুডা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ১৩ মাস সময়ের ব্যবধানে দুই দফা অভিশংসনের শিকার হলেন। বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোন প্রেসিডেন্ট নজিরবিহীনভাবে দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসিত হন। অভিশংসনের প্রস্তাবটি প্রতিনিধি পরিষদে ২৩২-১৯৭ ভোটে পাস হয়েছে। ১০ জন রিপাবলিকান সিনেটরও ট্রাম্পের বিপক্ষে অবস্থান নেন। গত সপ্তাহে ক্যাপিটল দাঙ্গায় উস্কানি দেয়ার কারণে ৭৪ বছর বয়সী ট্রাম্পকে অভিশংসিত হতে হয়েছে। খবর আলজাজিরা, বিবিসি ও সিএনএন অনলাইনের।

ভোটাভুটির পর প্রতিনিধি পরিষদে ডেমোক্র্যাটিক স্পীকার ন্যান্সি পেলোসি বলেন, আজ প্রমাণিত হলো কেউ আইনের উর্ধে নয়। এমনকি আমেরিকার প্রেসিডেন্টও নন। মার্কিন কংগ্রেসের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া অনুযায়ী প্রতিনিধি পরিষদে পাস হওয়া অভিশংসন প্রস্তাবটি সিনেটে যাওয়ার কথা। কিন্তু

সিনেটে রিপাবলিকান পার্টির নেতা মিচ ম্যাককনেল এক বিবৃতিতে বলেন, প্রস্তাবটি ২০ জানুয়ারির আগে অর্থাৎ ট্রাম্পের ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় সিনেটে আলোচনায় আসবে না। তিনি বলেছেন, দেশের জন্য এখন নতুন প্রশাসনের ক্ষমতা গ্রহণ প্রক্রিয়া মসৃণ হওয়াটাই দরকার। দেশের স্বার্থে প্রতিনিধি পরিষদে গৃহীত অভিশংসন প্রস্তাবটি নিয়ে সিনেটে আলোচনায় হবে ট্রাম্প ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার পর। এর অর্থ মেয়াদ শেষের আগে ক্ষমতা হারানো থেকে রেহাই পেয়ে যাচ্ছেন ট্রাম্প। আগামী ২০ জানুয়ারি নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শপথ নেবেন। দায়িত্ব নেবে নতুন সরকার। কিন্তু নতুন সরকার আসার পরেও ট্রাম্প যদি সিনেটেও দোষী সাব্যস্ত হন তাহলে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি প্রার্থী

হতে পারবেন না।

এর আগে ২০১৯ সালে ইউক্রেন কেলেঙ্কারির কারণে কংগ্রেসে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে প্রথম দফায় অভিশংসন করা হয়েছিল। ৬ জানুয়ারি মার্কিন পার্লামেন্টে জো বাইডেনের বিজয়কে সার্টিফাই করার সময়ে ট্রাম্পের আহ্বানে ওয়াশিংটন ডিসিতে জড়ো হওয়া সমর্থকরা ক্যাপিটল হিলে হামলা চালায়। এতে ৫ জনের প্রাণহানি ঘটে। এর পরপরই স্পীকার ন্যান্সি পেলোসির নেতৃত্বে খুব দ্রুত অভিশংসন প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। ২০ জানুয়ারি জো বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠান ঘিরে আরও হামলার আশঙ্কায় শুধু ওয়াশিংটন ডিসিই নয়, আশপাশের এলাকায়ও কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এরমধ্যেই সড়কসমূহে তল্লাশি চৌকি বসানো হয়েছে। ২০ হাজার ন্যাশনাল গার্ডের সদস্য এবং অন্তত আটটি রাজ্য থেকে পুলিশের চৌকস

দল ওয়াশিংটনে অবস্থান নিয়েছে। নিউইয়র্ক থেকেই যোগ দিচ্ছে ২ শ’ পুলিশের দল। ট্রাম্প তার এক ভিডিও বার্তায় অভিশংসনের কোন কথা উল্লেখ না করে সহিসংতা এড়িয়ে আমেরিকানদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘সহিংসতার কোন যুক্তি নেই, কোন অজুহাত নেই। আমেরিকা আইনের দেশ’। জো বাইডেন এক বিবৃতিতে সিনেটের উদ্দেশে বলেছেন, ‘আমি আশা করি অভিশংসনের ক্ষেত্রে সিনেট নেতৃত্ব তাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালনে একটি উপায় খুঁজে পাবে। একই সঙ্গে দেশের অন্যান্য জরুরি বিষয়েও কাজ করে যাবে’। ট্রাম্পকে ক্ষমতাচ্যুত করতে মঙ্গলবার মার্কিন সংবিধানের ২৫তম সংশোধনীর সমর্থনে প্রস্তাব পাস হয়। প্রস্তাবটি কার্যকরে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের দফতরে পাঠানো হয়েছে। তবে

প্রস্তাবটি পাসের আগেই মাইক পেন্স এতে সমর্থন না দেয়ার কথা জানান। স্পীকার ন্যাসি পেলোসিকে লেখা এক বার্তায় পেন্স বলেন, ট্রাম্পকে ক্ষমতা থেকে সরাতে ২৫তম সংশোধনী কার্যকর করা হবে না। এটি ভয়ঙ্কর নজির তৈরি করবে। উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ‘ক্ষমতা ধরে রাখতে এবং দায়িত্ব পালনে অক্ষম হলে’ মার্কিন সংবিধানের ২৫তম সংশোধনীর মাধ্যমে ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্ষমতায় বসতে পারেন। যদিও প্রতিনিধি পরিষদের এই প্রস্তাব কার্যত সফলতার মুখ দেখছে না, তবে এর প্রতীকী গুরুত্ব আছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ডোনেট বাংলাদেশ'কে জানাতে ই-মেইল করুন- donetbd2010@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

ডোনেট বাংলাদেশ'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© 2021 সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। ডোনেট বাংলাদেশ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT