প্রবাসী আয়ে বাংলাদেশ পঞ্চম - বর্ণমালা টেলিভিশন

আগের বছরের চেয়ে কমলেও ২০২১ সালে বাংলাদেশের প্রবাসী আয়ে (রেমিট্যান্স) ইতিবাচক ধারা অব্যাহত থাকবে।

কোভিডের আশঙ্কা দূর করে চলতি বছর বাংলাদেশে ২৩ বিলিয়ন বা ২ হাজার ৩০০ কোটি ডলার বা ১ লাখ ৯৩ হাজার ২০০ কোটি টাকা (এক ডলার সমান ৮৪ টাকা) প্রবাসী আয় আসতে পারে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

এ সময় প্রবাসী আয় প্রাপ্তির দিক থেকে বাংলাদেশ নিম্নমধ্যম আয়ের দেশের মধ্যে পঞ্চম স্থানে থাকবে। ২০২০ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল সপ্তম এবং ২০১৯ সালে অষ্টম। আর দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চলতি বছর প্রবাসী আয়ে বাংলাদেশের অবস্থান হবে তৃতীয়।

‘অভিবাসনের সাপেক্ষে কোভিড-১৯ সংকট উত্তোরণ’ শীর্ষক বিশ্বব্যাংক ও নোম্যাডের (গ্লোবাল নলেজ পার্টনারশিপ অন মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট)

এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এটি বুধবার রাতে ওয়াশিংটন থেকে প্রকাশিত হয়।

প্রতিবেদনের তথ্যানুসারে, ২০২১ সালে বাংলাদেশে প্রবাসী বাড়বে ৬ শতাংশ, যা ২০২০ সালে ছিল ৮ শতাংশ। যদিও ২০২১ সালের প্রথম দশ মাসে প্রবাসী আয় ধারাবাহিকভাবে কমেছে। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে বাংলাদেশের প্রবাসী আয় ২১ শতাংশ কমেছে।

বিদেশে কর্মী প্রেরণ ও দেশে আসা প্রবাসীদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া উল্লেখযোগ্য হারে কমে যাওয়ায় এ অবস্থা তৈরি হয়েছে। ২০২১ সালে বৈশ্বিক প্রবাসী আয়প্রবাহ ২০২০ সালের চেয়ে ৭ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। কোভিডের কারণে বৈশ্বিক অর্থনীতি সংকুচিত হওয়ায় ২০২০ সালে প্রবাসী আয় ১ দশমিক ৭ শতাংশ কমেছিল।

প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০২১ সালে নিম্ন ও

মধ্যম আয়ের দেশগুলোর মধ্যে প্রবাসী আয় প্রাপ্তিতে শীর্ষস্থানে থাকবে ভারত। চলতি বছর দেশটিতে প্রবাসী আয় আসবে ৮৭ বিলিয়ন ডলার।

দ্বিতীয় স্থানে যৌথভাবে থাকবে চীন ও মেক্সিকো। উভয় দেশই পাবে প্রায় ৫৩ বিলিয়ন ডলার। তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফিলিপাইন (৩৬ বিলিয়ন ডলার), যৌথভাবে চতুর্থ মিসর ও পাকিস্তান (৩৩ বিলিয়ন ডলার)। এরপরই আছে বাংলাদেশ।

করোনার মধ্যেও গত বছর বাংলাদেশে প্রায় ২২ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। এর আগের বছর, অর্থাৎ ২০১৯ সালে বাংলাদেশে প্রবাসী আয় এসেছিল ১৮ দশমিক ৩৬ বিলিয়ন ডলার।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯-এর প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশে ভালো প্রবাসী আয় এসেছে। বিশেষ করে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের অবস্থা খুবই ভালো। ২০২১ সালে দক্ষিণ এশিয়ায়

প্রবাসী আয়ের প্রবৃদ্ধি হবে ৮২ শতাংশ, পরিমাণগত দিক থেকে যা ১৫৯ বিলিয়ন ডলার।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে প্রবাসী আয় আহরণে ভারত, পাকিস্তানের পরেই বাংলাদেশের অবস্থান। এছাড়া চলতি বছর নেপালে প্রবাসী আয় আসবে সাড়ে ৮ বিলিয়ন ডলার (চতুর্থ) ও শ্রীলংকায় ৬ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার (পঞ্চম)।

তবে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপির) অনুপাতে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চতুর্থ। বাংলাদেশের জিডিপিতে প্রবাসী আয়ের অবদান ৬ দশমিক ৫ শতাংশ।

এ ক্ষেত্রে ২৪ দশমিক ৮ শতাংশ নিয়ে প্রথম স্থানে আছে নেপাল, ১২ দশমিক ৬ শতাংশ নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে পাকিস্তান, ৮ দশমিক ৩ শতাংশ নিয়ে তৃতীয় স্থানে শ্রীলংকা, আফগানিস্তান পঞ্চম (৩.১ শতাংশ) ও ভারত ষষ্ঠ (৩ শতাংশ)।

আগের বছরের চেয়ে কমলেও ২০২১ সালে বাংলাদেশের প্রবাসী আয়ে (রেমিট্যান্স) ইতিবাচক ধারা অব্যাহত থাকবে।

কোভিডের আশঙ্কা দূর করে চলতি বছর বাংলাদেশে ২৩ বিলিয়ন বা ২ হাজার ৩০০ কোটি ডলার বা ১ লাখ ৯৩ হাজার ২০০ কোটি টাকা (এক ডলার সমান ৮৪ টাকা) প্রবাসী আয় আসতে পারে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

এ সময় প্রবাসী আয় প্রাপ্তির দিক থেকে বাংলাদেশ নিম্নমধ্যম আয়ের দেশের মধ্যে পঞ্চম স্থানে থাকবে। ২০২০ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল সপ্তম এবং ২০১৯ সালে অষ্টম। আর দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চলতি বছর প্রবাসী আয়ে বাংলাদেশের অবস্থান হবে তৃতীয়।

‘অভিবাসনের সাপেক্ষে কোভিড-১৯ সংকট উত্তোরণ’ শীর্ষক বিশ্বব্যাংক ও নোম্যাডের (গ্লোবাল নলেজ পার্টনারশিপ অন মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট)

এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এটি বুধবার রাতে ওয়াশিংটন থেকে প্রকাশিত হয়।

প্রতিবেদনের তথ্যানুসারে, ২০২১ সালে বাংলাদেশে প্রবাসী বাড়বে ৬ শতাংশ, যা ২০২০ সালে ছিল ৮ শতাংশ। যদিও ২০২১ সালের প্রথম দশ মাসে প্রবাসী আয় ধারাবাহিকভাবে কমেছে। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে বাংলাদেশের প্রবাসী আয় ২১ শতাংশ কমেছে।

বিদেশে কর্মী প্রেরণ ও দেশে আসা প্রবাসীদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া উল্লেখযোগ্য হারে কমে যাওয়ায় এ অবস্থা তৈরি হয়েছে। ২০২১ সালে বৈশ্বিক প্রবাসী আয়প্রবাহ ২০২০ সালের চেয়ে ৭ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। কোভিডের কারণে বৈশ্বিক অর্থনীতি সংকুচিত হওয়ায় ২০২০ সালে প্রবাসী আয় ১ দশমিক ৭ শতাংশ কমেছিল।

প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০২১ সালে নিম্ন ও

মধ্যম আয়ের দেশগুলোর মধ্যে প্রবাসী আয় প্রাপ্তিতে শীর্ষস্থানে থাকবে ভারত। চলতি বছর দেশটিতে প্রবাসী আয় আসবে ৮৭ বিলিয়ন ডলার।

দ্বিতীয় স্থানে যৌথভাবে থাকবে চীন ও মেক্সিকো। উভয় দেশই পাবে প্রায় ৫৩ বিলিয়ন ডলার। তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফিলিপাইন (৩৬ বিলিয়ন ডলার), যৌথভাবে চতুর্থ মিসর ও পাকিস্তান (৩৩ বিলিয়ন ডলার)। এরপরই আছে বাংলাদেশ।

করোনার মধ্যেও গত বছর বাংলাদেশে প্রায় ২২ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। এর আগের বছর, অর্থাৎ ২০১৯ সালে বাংলাদেশে প্রবাসী আয় এসেছিল ১৮ দশমিক ৩৬ বিলিয়ন ডলার।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯-এর প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশে ভালো প্রবাসী আয় এসেছে। বিশেষ করে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের অবস্থা খুবই ভালো। ২০২১ সালে দক্ষিণ এশিয়ায়

প্রবাসী আয়ের প্রবৃদ্ধি হবে ৮২ শতাংশ, পরিমাণগত দিক থেকে যা ১৫৯ বিলিয়ন ডলার।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে প্রবাসী আয় আহরণে ভারত, পাকিস্তানের পরেই বাংলাদেশের অবস্থান। এছাড়া চলতি বছর নেপালে প্রবাসী আয় আসবে সাড়ে ৮ বিলিয়ন ডলার (চতুর্থ) ও শ্রীলংকায় ৬ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার (পঞ্চম)।

তবে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপির) অনুপাতে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চতুর্থ। বাংলাদেশের জিডিপিতে প্রবাসী আয়ের অবদান ৬ দশমিক ৫ শতাংশ।

এ ক্ষেত্রে ২৪ দশমিক ৮ শতাংশ নিয়ে প্রথম স্থানে আছে নেপাল, ১২ দশমিক ৬ শতাংশ নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে পাকিস্তান, ৮ দশমিক ৩ শতাংশ নিয়ে তৃতীয় স্থানে শ্রীলংকা, আফগানিস্তান পঞ্চম (৩.১ শতাংশ) ও ভারত ষষ্ঠ (৩ শতাংশ)।

প্রবাসী আয়ে বাংলাদেশ পঞ্চম

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৯ নভেম্বর, ২০২১ | ৭:২৮ 75 ভিউ
আগের বছরের চেয়ে কমলেও ২০২১ সালে বাংলাদেশের প্রবাসী আয়ে (রেমিট্যান্স) ইতিবাচক ধারা অব্যাহত থাকবে। কোভিডের আশঙ্কা দূর করে চলতি বছর বাংলাদেশে ২৩ বিলিয়ন বা ২ হাজার ৩০০ কোটি ডলার বা ১ লাখ ৯৩ হাজার ২০০ কোটি টাকা (এক ডলার সমান ৮৪ টাকা) প্রবাসী আয় আসতে পারে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক। এ সময় প্রবাসী আয় প্রাপ্তির দিক থেকে বাংলাদেশ নিম্নমধ্যম আয়ের দেশের মধ্যে পঞ্চম স্থানে থাকবে। ২০২০ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল সপ্তম এবং ২০১৯ সালে অষ্টম। আর দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চলতি বছর প্রবাসী আয়ে বাংলাদেশের অবস্থান হবে তৃতীয়। ‘অভিবাসনের সাপেক্ষে কোভিড-১৯ সংকট উত্তোরণ’ শীর্ষক বিশ্বব্যাংক ও নোম্যাডের (গ্লোবাল নলেজ পার্টনারশিপ অন মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট)

এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এটি বুধবার রাতে ওয়াশিংটন থেকে প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনের তথ্যানুসারে, ২০২১ সালে বাংলাদেশে প্রবাসী বাড়বে ৬ শতাংশ, যা ২০২০ সালে ছিল ৮ শতাংশ। যদিও ২০২১ সালের প্রথম দশ মাসে প্রবাসী আয় ধারাবাহিকভাবে কমেছে। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে বাংলাদেশের প্রবাসী আয় ২১ শতাংশ কমেছে। বিদেশে কর্মী প্রেরণ ও দেশে আসা প্রবাসীদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া উল্লেখযোগ্য হারে কমে যাওয়ায় এ অবস্থা তৈরি হয়েছে। ২০২১ সালে বৈশ্বিক প্রবাসী আয়প্রবাহ ২০২০ সালের চেয়ে ৭ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। কোভিডের কারণে বৈশ্বিক অর্থনীতি সংকুচিত হওয়ায় ২০২০ সালে প্রবাসী আয় ১ দশমিক ৭ শতাংশ কমেছিল। প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০২১ সালে নিম্ন ও

মধ্যম আয়ের দেশগুলোর মধ্যে প্রবাসী আয় প্রাপ্তিতে শীর্ষস্থানে থাকবে ভারত। চলতি বছর দেশটিতে প্রবাসী আয় আসবে ৮৭ বিলিয়ন ডলার। দ্বিতীয় স্থানে যৌথভাবে থাকবে চীন ও মেক্সিকো। উভয় দেশই পাবে প্রায় ৫৩ বিলিয়ন ডলার। তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফিলিপাইন (৩৬ বিলিয়ন ডলার), যৌথভাবে চতুর্থ মিসর ও পাকিস্তান (৩৩ বিলিয়ন ডলার)। এরপরই আছে বাংলাদেশ। করোনার মধ্যেও গত বছর বাংলাদেশে প্রায় ২২ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। এর আগের বছর, অর্থাৎ ২০১৯ সালে বাংলাদেশে প্রবাসী আয় এসেছিল ১৮ দশমিক ৩৬ বিলিয়ন ডলার। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯-এর প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশে ভালো প্রবাসী আয় এসেছে। বিশেষ করে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের অবস্থা খুবই ভালো। ২০২১ সালে দক্ষিণ এশিয়ায়

প্রবাসী আয়ের প্রবৃদ্ধি হবে ৮২ শতাংশ, পরিমাণগত দিক থেকে যা ১৫৯ বিলিয়ন ডলার। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে প্রবাসী আয় আহরণে ভারত, পাকিস্তানের পরেই বাংলাদেশের অবস্থান। এছাড়া চলতি বছর নেপালে প্রবাসী আয় আসবে সাড়ে ৮ বিলিয়ন ডলার (চতুর্থ) ও শ্রীলংকায় ৬ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার (পঞ্চম)। তবে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপির) অনুপাতে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চতুর্থ। বাংলাদেশের জিডিপিতে প্রবাসী আয়ের অবদান ৬ দশমিক ৫ শতাংশ। এ ক্ষেত্রে ২৪ দশমিক ৮ শতাংশ নিয়ে প্রথম স্থানে আছে নেপাল, ১২ দশমিক ৬ শতাংশ নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে পাকিস্তান, ৮ দশমিক ৩ শতাংশ নিয়ে তৃতীয় স্থানে শ্রীলংকা, আফগানিস্তান পঞ্চম (৩.১ শতাংশ) ও ভারত ষষ্ঠ (৩ শতাংশ)।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ