পশ্চিমা কূটনীতিকদের সঙ্গে তালেবানের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক চলছে – বর্ণমালা টেলিভিশন

পশ্চিমা কূটনীতিকদের সঙ্গে তালেবানের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক চলছে

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ২৪ জানুয়ারি, ২০২২ | ৮:৪৪ 44 ভিউ
নরওয়ের রাজধানী অসলোর বাইরে পশ্চিমা কূটনীতিকদের সঙ্গে তালেবান বৈঠকে বসেছে। এই বৈঠকের মূল আলোচ্য বিষয় আফগানিস্তানের মানবিক সংকট। আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, সোমবার পশ্চিমা কর্মকর্তাদের সঙ্গে তালেবান সদস্যদের আলোচনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিন। যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকগুলোয় থাকা আফগানিস্তানের কোটি কোটি ডলার অর্থে প্রবেশাধিকারের অনুরোধ জানাতে পারে তালেবান। অসলো শহরের ঠিক বাইরে পাহারের চূড়ায় সোরিয়া মোরিয়া হোটেলে তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুক্তাকীর নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, ব্রিটেন, জার্মানি, ইতালিসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের কূটনীতিকরা রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসেছেন। এর আগে রোববার তালেবান প্রতিনিধি দল আফগানিস্তানের নারী অধিকারকর্মীসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবর্গের সঙ্গে বৈঠকে বসে। নারী অধিকারকর্মী জামিলা আফগানি এএফপিকে বলেছেন, এটা ছিল ফলপ্রসূ বৈঠক। এই নারী অধিকারকর্মী বলেন, তালেবান সদিচ্ছা দেখিয়েছে। এখন দেখা যাক, কথার মতো তারা কাজেও এক থাকে কিনা। আফগানিস্তানে বেকারত্ব অনেক বেড়ে গেছে। বেড়েছে খাদ্যের দাম। দেশটির মুদ্রার মান হ্রাস পাচ্ছে। ব্যাংকগুলো নগদ উত্তোলনের সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে। জাতিসংঘ সতর্ক করে বলেছে, আফগানিস্তানের জনসংখ্যার ৫৫ শতাংশ ক্ষুধার হুমকির মুখে। সম্প্রতি ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তা প্রদানের সুবিধার্থে দেশটির রাজধানী কাবুলে ‘ন্যূনতম উপস্থিতি’ পুনঃপ্রতিষ্ঠা শুরুর ঘোষণা দেয়। গত ১৫ আগস্ট কাবুলের পতন হয়। কাবুল পতনের মধ্য দিয়ে আফগানিস্তানের ক্ষমতা দ্বিতীয়বারের মতো তালেবানের হাতে যায়। পরের মাসে অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের ঘোষণা দেয় তালেবান। তালেবানের ক্ষমতা দখলের পর পশ্চিমা দেশগুলো আফগানিস্তানের জন্য আন্তর্জাতিক সাহায্য স্থগিত করে। দেশটির বিদেশে থাকা সম্পদে প্রবেশাধিকার বন্ধ করে দেয়। এ কারণে আফগানিস্তানের মানবিক পরিস্থিতি গুরুতর আকার ধারণ করে। সূত্র: আল জাজিরা

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:



































শীর্ষ সংবাদ:
বেনাপোল সীমান্তে সচল পিস্তলসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রেফতার নির্মাণসামগ্রীর দাম চড়া, উন্নয়ন প্রকল্পে ধীরগতি কলম্বোতে কারফিউ জারি টিকে থাকার লড়াইয়ে ছক্কা হাকাতে পারবেন ইমরান খান? করোনায় আজও মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত কমেছে ‘ততক্ষণ খেলব যতক্ষণ না আমার চেয়ে ভালো কাউকে দেখব’ এবার ইয়েমেনে পাল্টা হামলা চালাল সৌদি জোট স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানি করেছে মোদি সরকার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়া নিয়ে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, এলাকা রণক্ষেত্র ইউক্রেনকে বিপুল ক্ষেপণাস্ত্র ও মেশিনগান দিয়েছে জার্মানি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩ ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাবের ‘লাল-সবুজের পতাকা বিশ্বজুড়ে আনবে একতা‘-শীর্ষক সভা বঙ্গবন্ধু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর নওহাঁটায় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন । ভূরুঙ্গামারীতে ব্যাপরোয়া অটোরিকশা কেরে নিল শিশুর ফাহিম এর প্রাণ ভূরুঙ্গামারী কিশোর গ‍্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ৬ তম রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ৫২ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-২ বেনাপোল স্থলপথে স্টুডেন্ট ভিসায় বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমন নিষেধ গেরিলা যোদ্ধা অপূর্ব