দিনাজপুরে ঘাস হিসাবে বিক্রি হচ্ছে গম গাছ – বর্ণমালা টেলিভিশন

দিনাজপুরে ঘাস হিসাবে বিক্রি হচ্ছে গম গাছ

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ | ৮:২৫ 65 ভিউ
চাহিদা বাড়লেও দেশে কমছে গম আবাদ। তার ওপর দিনাজপুরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় কেটে ফেলা হচ্ছে জমির অপরিপক্ব সবুজ গাছ। ঘাসের পরিবর্তে এগুলো গবাদিপশুকে খাওয়ানো হচ্ছে। দিনাজপুরে ব্যাপক হারে এ প্রবণতা শুরু হওয়ায় দেশে খাদ্য নিরাপত্তার ওপর প্রভাব পড়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা। বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষনা ইনস্টিটিউটের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শুধু দিনাজপুর নয়, দেশের বিভিন্ন এলাকায় কৃষকদের মধ্যে এ প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এতে ফলন আরও হ্রাস পেতে পারে। এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে কৃষি বিভাগকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার ৫নং খয়েরবাড়ী ইউনিয়নে মুক্তারপুর (ডাঙ্গাপাড়া) গ্রামের কৃষক রুবেল হোসেন। এ বছর তিন একর জমিতে গম রোপণ করেছেন। ইতোমধ্যে তার সবুজ গম খেতে শিষ বের হয়েছে। আর এক মাস পরেই গম কাটা-মাড়াইয়ের কথা। কিন্তু শিষ বের হওয়া এসব সবুজ গম খেত কেটে বাজারে গোখাদ্য হিসাবে বিক্রি করছেন তিনি। গমের ফলন বাদ দিয়ে কেটে বিক্রি করছেন কেন-এমন প্রশ্নের উত্তরে প্রথমে তিনি জানান, ইঁদুরের অত্যাচারে কেটে বাজারে বিক্রি করে দিচ্ছেন। কিন্তু লাভ-ক্ষতির কথা জিজ্ঞেস করতেই তার মুখ থেকে বের হয়ে আসে আসল কথা। তিনি জানান, গম রোপণ করার পর এ পর্যন্ত প্রতিবিঘা জমিতে খরচ হয়েছে ৮ হাজার টাকা। এই গম মাড়াই করে বিক্রি করলে প্রতি বিঘা জমিতে ১০ মন করে গম ফলন হলে তিনি বিঘা প্রতি পাবেন ১২ থেকে ১৩ হাজার টাকা। কিন্তু এখনই কাঁচা গম গাছ কেটে গোখাদ্য হিসাবে বিক্রি করে প্রতি বিঘা জমিতে পাচ্ছেন ১৮ থেকে ১৯ হাজার টাকা। বাজারে গোখাদ্যের চাহিদা থাকায় লাভ পাচ্ছেন বেশি। তাই ফলনের জন্য অপেক্ষা আর বাড়তি পরিশ্রম না করে এখনই খেত থেকে কাঁচা গম কেটে বিক্রি করে দিচ্ছেন। এভাবে তিনি তার পুরো ৩ একর জমির সবুজ গম গাছ বিক্রি করে দিচ্ছেন। শুধু রুবেল নন, একই এলাকার ইসমাইল হোসেন, কামাল হোসেন, সামিনুরসহ প্রায় ১০-১২ জন কৃষক এভাবেই অপরিপক্ব গম গাছ কেটে গোখাদ্য হিসাবে বাজারে বিক্রি করে দিচ্ছেন। বিরল, কাহারোল, বীরগঞ্জ, চিরিরবন্দর, পার্বতীপুর, বিরামপুর, নবাবগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কৃষকরা গম রোপণ করে ফলনের দিকে না গিয়ে এভাবেই খেতের কাঁচা গম গোখাদ্য হিসাবে বাজারে বিক্রি করে দিচ্ছেন। দিনাজপুর জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক এসএম সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, গম মূলত মানুষের খাদ্য হিসাবেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। দেশে এমননিতেই চাহিদার তুলনায় গমের উৎপাদন কম। তার ওপর কাঁচা গম গাছ এভাবে কেটে গোখাদ্য হিসাবে বাজারে বিক্রি করে দিলে, তা দেশের সার্বিক খাদ্য নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মনজুরুল হক বলেন, চলতি মৌসুমে দিনাজপুর জেলায় ৫ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে গম আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু আবাদ হয়েছে মাত্র ৩ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে। এমনিতেই লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কম জমিতে গম আবাদ হয়েছে, তার ওপর যদি এভাবে কাঁচা গম খেত কেটে ফেলা হয়, তাহলে গমের উৎপাদন আরও কমে যাবে। তিনি বলেন, বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। যেহেতু গো-খাদ্যের চাহিদা রয়েছে, সেহেতু কৃষকদের উন্নতমানের ঘাস চাষের জন্য পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য গম চাষে কৃষকদের উৎসাহিত করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আব্দুল হাকিম বলেন, দেশে বছরে গমের চাহিদা ৭৫ লাখ টন। কিন্তু বর্তমানে উৎপাদন হচ্ছে মাত্র ১২ লাখ ৪১ হাজার টন। প্রতিবছর ১০ শতাংশ হারে গমের চাহিদা বাড়ছে। তাই দেশের চাহিদা মেটাতে বিদেশ থেকে গম আমদানি করতে হয়। এর ওপর দিনাজপুর, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে কাঁচা গম খেত কেটে অধিক লাভের আশায় গোখাদ্য হিসাবে বিক্রি করা হচ্ছে। এটি আমাদের দেশের জন্য উদ্বেগজনক। তিনি বলেন, কৃষকদের এ প্রবণতা পর্যবেক্ষণ করে বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের পক্ষ থেকে কৃষি বিভাগকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। যাতে কৃষকদের এই প্রবণতা থেকে বেরিয়ে এসে গমের উৎপাদন বৃদ্ধিতে কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া হয়।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:



































শীর্ষ সংবাদ:
বেনাপোল সীমান্তে সচল পিস্তলসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রেফতার নির্মাণসামগ্রীর দাম চড়া, উন্নয়ন প্রকল্পে ধীরগতি কলম্বোতে কারফিউ জারি টিকে থাকার লড়াইয়ে ছক্কা হাকাতে পারবেন ইমরান খান? করোনায় আজও মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত কমেছে ‘ততক্ষণ খেলব যতক্ষণ না আমার চেয়ে ভালো কাউকে দেখব’ এবার ইয়েমেনে পাল্টা হামলা চালাল সৌদি জোট স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানি করেছে মোদি সরকার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়া নিয়ে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, এলাকা রণক্ষেত্র ইউক্রেনকে বিপুল ক্ষেপণাস্ত্র ও মেশিনগান দিয়েছে জার্মানি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩ ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাবের ‘লাল-সবুজের পতাকা বিশ্বজুড়ে আনবে একতা‘-শীর্ষক সভা বঙ্গবন্ধু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর নওহাঁটায় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন । ভূরুঙ্গামারীতে ব্যাপরোয়া অটোরিকশা কেরে নিল শিশুর ফাহিম এর প্রাণ ভূরুঙ্গামারী কিশোর গ‍্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ৬ তম রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ৫২ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-২ বেনাপোল স্থলপথে স্টুডেন্ট ভিসায় বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমন নিষেধ গেরিলা যোদ্ধা অপূর্ব