জার্মানিতে স্ত্রীসহ ৩ সন্তানকে হত্যা করে যুবকের আত্মহত্যা - বর্ণমালা টেলিভিশন

করোনার টিকা গ্রহণের ভুয়া সনদ সংগ্রহ করা জার্মানির এক ব্যক্তি তার স্ত্রী ও তিন সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন।

গ্রেফতার আতঙ্কে তিনি ওই হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছেন বলে মঙ্গলবার এক জার্মান প্রসিকিউটর জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

বার্লিনের দক্ষিণে কোয়েনিগস ওয়াস্টারহাউসেন এলাকায় গত শনিবার একটি বাড়িতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ওই পরিবারের পাঁচ সদস্যের মরদেহ উদ্ধার করে জার্মান পুলিশ।

নিহতদের মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক দুজনের বয়স ৪০ বছর এবং তিন শিশুর বয়স ৪, ৮ ও ১০ বছর। গুলিবিদ্ধ হয়ে তাদের সবার মৃত্যু হয়।

পুলিশের ধরণা, দম্পতির আশঙ্কা ছিল— এই জালিয়াতি ধরা পড়লে তাদের গ্রেফতার ও সন্তানদের কেড়ে নেওয়া হবে। এই আশঙ্কা থেকেই স্ত্রী ও তিন সন্তানকে হত্যার পর নিজেই আত্মহত্যা করেন

ওই ব্যক্তি।

পুলিশের পাওয়া একটি সুইসাইড নোটে ওই ব্যক্তি উল্লেখ করেছেন— তিনি স্ত্রীর জন্য একটি ভুয়া করোনার টিকা নেওয়ার সনদ বানিয়েছেন। স্ত্রীর অফিসের লোকজন তা ধরে ফেলে। ফলে ওই দম্পতি গ্রেফতার ও সন্তান হারানোর আশঙ্কায় ছিলেন।

করোনার টিকা গ্রহণের ভুয়া সনদ সংগ্রহ করা জার্মানির এক ব্যক্তি তার স্ত্রী ও তিন সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন।

গ্রেফতার আতঙ্কে তিনি ওই হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছেন বলে মঙ্গলবার এক জার্মান প্রসিকিউটর জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

বার্লিনের দক্ষিণে কোয়েনিগস ওয়াস্টারহাউসেন এলাকায় গত শনিবার একটি বাড়িতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ওই পরিবারের পাঁচ সদস্যের মরদেহ উদ্ধার করে জার্মান পুলিশ।

নিহতদের মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক দুজনের বয়স ৪০ বছর এবং তিন শিশুর বয়স ৪, ৮ ও ১০ বছর। গুলিবিদ্ধ হয়ে তাদের সবার মৃত্যু হয়।

পুলিশের ধরণা, দম্পতির আশঙ্কা ছিল— এই জালিয়াতি ধরা পড়লে তাদের গ্রেফতার ও সন্তানদের কেড়ে নেওয়া হবে। এই আশঙ্কা থেকেই স্ত্রী ও তিন সন্তানকে হত্যার পর নিজেই আত্মহত্যা করেন

ওই ব্যক্তি।

পুলিশের পাওয়া একটি সুইসাইড নোটে ওই ব্যক্তি উল্লেখ করেছেন— তিনি স্ত্রীর জন্য একটি ভুয়া করোনার টিকা নেওয়ার সনদ বানিয়েছেন। স্ত্রীর অফিসের লোকজন তা ধরে ফেলে। ফলে ওই দম্পতি গ্রেফতার ও সন্তান হারানোর আশঙ্কায় ছিলেন।

জার্মানিতে স্ত্রীসহ ৩ সন্তানকে হত্যা করে যুবকের আত্মহত্যা

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৯ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৪:৩৯ 91 ভিউ
করোনার টিকা গ্রহণের ভুয়া সনদ সংগ্রহ করা জার্মানির এক ব্যক্তি তার স্ত্রী ও তিন সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন। গ্রেফতার আতঙ্কে তিনি ওই হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছেন বলে মঙ্গলবার এক জার্মান প্রসিকিউটর জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের। বার্লিনের দক্ষিণে কোয়েনিগস ওয়াস্টারহাউসেন এলাকায় গত শনিবার একটি বাড়িতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ওই পরিবারের পাঁচ সদস্যের মরদেহ উদ্ধার করে জার্মান পুলিশ। নিহতদের মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক দুজনের বয়স ৪০ বছর এবং তিন শিশুর বয়স ৪, ৮ ও ১০ বছর। গুলিবিদ্ধ হয়ে তাদের সবার মৃত্যু হয়। পুলিশের ধরণা, দম্পতির আশঙ্কা ছিল— এই জালিয়াতি ধরা পড়লে তাদের গ্রেফতার ও সন্তানদের কেড়ে নেওয়া হবে। এই আশঙ্কা থেকেই স্ত্রী ও তিন সন্তানকে হত্যার পর নিজেই আত্মহত্যা করেন

ওই ব্যক্তি। পুলিশের পাওয়া একটি সুইসাইড নোটে ওই ব্যক্তি উল্লেখ করেছেন— তিনি স্ত্রীর জন্য একটি ভুয়া করোনার টিকা নেওয়ার সনদ বানিয়েছেন। স্ত্রীর অফিসের লোকজন তা ধরে ফেলে। ফলে ওই দম্পতি গ্রেফতার ও সন্তান হারানোর আশঙ্কায় ছিলেন।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ