ঢাকা, Wednesday 22 September 2021

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

খুলনায় এক শ’ কিমি সড়ক বেহাল

প্রকাশিত : 09:52 AM, 10 September 2020 Thursday
120 বার পঠিত

| ডোনেট বিডি নিউজ ডেস্কঃ |

খুলনা জেলার জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কগুলোর প্রায় ১০০ কিলোমিটার জরাজীর্ণ হয়ে পড়ায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এসব রাস্তার বিভিন্ন স্থানের কার্পেটিং উঠে গর্ত ও খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। কোথাও কোথাও দেখা দিয়েছে ফাটল। সড়কের অপ্রশস্ততা, নির্দেশক না থাকা ও বিভিন্ন স্থান উঁচু-নিচু হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করছে। ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। সড়ক বিভাগ জানিয়েছে খুলনার ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা সংস্কার, মেরামত ও পুনর্নির্মাণে কয়েকটি প্রকল্পে অনেক টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়িত হলে সমস্যা নিরসন হবে।

খুলনা সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, খুলনা জেলার সড়ক বিভাগের মোট সড়কের দৈর্ঘ্য ৩৭৪ কিলোমিটার। এর মধ্যে জাতীয় মহাসড়ক প্রায়

৬২ কিলোমিটার। আঞ্চলিক মহাসড়কের দৈর্ঘ্য ৩১২ কিলোমিটার। ঘূর্ণিঝড় আমফান, অতিবৃষ্টি, যানবাহনে মাত্রাতিরিক্ত লোড, বেআইনী যানবাহন ও ফিটনেসবিহীন যানবাহন চলাচলের কারণে প্রায় ১০০ কিলোমিটার সড়ক জরাজীর্ণ হয়ে আছে। বিশেষ করে আন্তঃজেলা ও দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা যানবাহনগুলো শহরে প্রবেশের প্রায় সকল সংযোগ চলাচলের অনুপযোগী। তবে খুলনার সড়ক উন্নয়নে সরকার ব্যাপক বরাদ্দ দিয়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে সড়কের দুরবস্থা লাঘব হবে। সূত্র জানায়, খুলনা সড়ক বিভাগ যোগাযোগের ক্ষেত্রে কয়েকটি মেগা প্রকল্প গ্রহণ করেছে। যেগুলো বাস্তবায়ন করা হলে দক্ষিণাঞ্চলে যোগাযোগের ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে। প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে, ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত কয়রা- নওয়াবেকি- শ্যামনগর ৭ কিলোমিটার

সড়ক নির্মাণ। তেরখাদা- বর্ণাল- কালিয়া ৫ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণে বরাদ্দ ২১ কোটি টাকা। বেতাগ্রাম (১৮ মাইল)- কেশবপুর সাড়ে ৫ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণে বরাদ্দ ২১ কোটি টাকা। দাকোপ-বারোআড়িয়া-মাগুরখালী-তালা ৮ দশমিক ৮ কিলোমিটার সড়কের জন্য বরাদ্দ ৪৬ কোটি টাকা। শহরাংশে ময়লাপোতা মোড় থেকে গল্লামারী জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত ৪ কিলোমিটার সড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ৮০ কোটি টাকা। এছাড়া বেতাগ্রাম (১৮মাইল)- তালা- পাইকগাছা- কয়রা ৬৫ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের বরাদ্দ ৩৩৯ কোটি টাকা। সড়ক ও জনপথ বিভাগ খুলনার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুজ্জামান মাসুদ জানান, এসব সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে দ্রুত সংস্কার করার জন্য বেশ কিছু

প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। সেগুলো বাস্তবায়ন হলে সড়কে চলাচলের দুর্ভোগ কমবে। আগামী বছরের জুন মাসের মধ্যে এসব প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ডোনেট বাংলাদেশ'কে জানাতে ই-মেইল করুন- donetbd2010@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

ডোনেট বাংলাদেশ'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© 2021 সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। ডোনেট বাংলাদেশ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT