কোটি টাকার সোনাসহ গ্রেফতার ব্যক্তির যাবজ্জীবন - বর্ণমালা টেলিভিশন

যশোরে সোনা চোরাচালান মামলায় দিলীপ বিশ্বাস নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের দণ্ড দিয়েছেন আদালত। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এ মামলায় দুজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো. মোস্তফা কামাল এ রায় দেন। রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত আইনজীবী বিমল কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস যশোরের বেনাপোল থানাধীন ৩ নম্বর ঘিবা গ্রামের নরেন বিশ্বাসের ছেলে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৪৯ বিজিবির সদস্যরা জানতে পারেন, ঘিবা মাঠ দিয়ে একজন সোনা নিয়ে ভারতে যাবেন। এরপর বিজিবি সদস্যরা জিরো লাইনের ২২ নম্বর পিলারের

কাছে অবস্থান নেন। এক ব্যক্তিকে আসতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাকে থামার নির্দেশ দিলে তিনি দৌড় দেন, পরে তাকে আটক করা হয়। তার দেহ তল্লাশি করে গামছায় মোড়ানো দুটি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন দুই কেজি। দাম এক কোটি আট লাখ ৮০ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে বিজিবির হাবিলদার উবাইদুল্লাহ হক বাদী হয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে দিলীপসহ তিন জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শফি আহমেদ রিয়েল। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে দিলীপের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন।



মামলার অপর আসামি একই গ্রামের আছের আলী ও মিন্নু হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বিচারক তাদের খালাস দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস কারাগারে আছেন।

যশোরে সোনা চোরাচালান মামলায় দিলীপ বিশ্বাস নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের দণ্ড দিয়েছেন আদালত। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এ মামলায় দুজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো. মোস্তফা কামাল এ রায় দেন। রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত আইনজীবী বিমল কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস যশোরের বেনাপোল থানাধীন ৩ নম্বর ঘিবা গ্রামের নরেন বিশ্বাসের ছেলে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৪৯ বিজিবির সদস্যরা জানতে পারেন, ঘিবা মাঠ দিয়ে একজন সোনা নিয়ে ভারতে যাবেন। এরপর বিজিবি সদস্যরা জিরো লাইনের ২২ নম্বর পিলারের

কাছে অবস্থান নেন। এক ব্যক্তিকে আসতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাকে থামার নির্দেশ দিলে তিনি দৌড় দেন, পরে তাকে আটক করা হয়। তার দেহ তল্লাশি করে গামছায় মোড়ানো দুটি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন দুই কেজি। দাম এক কোটি আট লাখ ৮০ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে বিজিবির হাবিলদার উবাইদুল্লাহ হক বাদী হয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে দিলীপসহ তিন জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শফি আহমেদ রিয়েল। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে দিলীপের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন।



মামলার অপর আসামি একই গ্রামের আছের আলী ও মিন্নু হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বিচারক তাদের খালাস দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস কারাগারে আছেন।

কোটি টাকার সোনাসহ গ্রেফতার ব্যক্তির যাবজ্জীবন

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৩ ডিসেম্বর, ২০২১ | ১১:১৬ 84 ভিউ
যশোরে সোনা চোরাচালান মামলায় দিলীপ বিশ্বাস নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের দণ্ড দিয়েছেন আদালত। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এ মামলায় দুজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো. মোস্তফা কামাল এ রায় দেন। রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত আইনজীবী বিমল কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস যশোরের বেনাপোল থানাধীন ৩ নম্বর ঘিবা গ্রামের নরেন বিশ্বাসের ছেলে। মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৪৯ বিজিবির সদস্যরা জানতে পারেন, ঘিবা মাঠ দিয়ে একজন সোনা নিয়ে ভারতে যাবেন। এরপর বিজিবি সদস্যরা জিরো লাইনের ২২ নম্বর পিলারের

কাছে অবস্থান নেন। এক ব্যক্তিকে আসতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাকে থামার নির্দেশ দিলে তিনি দৌড় দেন, পরে তাকে আটক করা হয়। তার দেহ তল্লাশি করে গামছায় মোড়ানো দুটি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন দুই কেজি। দাম এক কোটি আট লাখ ৮০ হাজার টাকা। এ বিষয়ে বিজিবির হাবিলদার উবাইদুল্লাহ হক বাদী হয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে দিলীপসহ তিন জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শফি আহমেদ রিয়েল। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে দিলীপের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। এ

মামলার অপর আসামি একই গ্রামের আছের আলী ও মিন্নু হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বিচারক তাদের খালাস দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস কারাগারে আছেন।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ