কুমারখালী সরকারি চাকরিজীবী যখন টোকাই – বর্ণমালা টেলিভিশন

কুমারখালী সরকারি চাকরিজীবী যখন টোকাই

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ | ৪:১৯ 110 ভিউ
অভাবি বা না খেয়ে থাকা লোকের পক্ষেও যেটা করা সন্ ভাব না সেটা করছে একজন সরকারী চাকরিজীবী।মাসে মাসে সরকারী বেতবভূক্ত কোট প্যান্ট পড়া মানুষ যখন রাস্তার পাশে ফেলে রাখা ময়লাগুলো থেকে খাবার বা ময়লা কাগজ কুরিয়ে বিক্রি করার জন্য শিয়াল বা অন্য পশুর মতো কাজ করতে পারে তখন বুঝতে হবে নৈতিকতার কতোটা অধ্রপতন হয়েছে।৭ ফেব্রয়ারী দুপুর ১২টার সময় বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে একটি লোককে ময়লা আবর্জনা থেকে উদ্ সৃষ্ট খাবার ও ছেরা কাগজপত্তর কুরাতে দেখে প্রথমে মনে হয়েছিল লোকটি অভাবের তারোনায় এমন কাজ করছে, কিন্তু পরে যখন জানতে পারলাম লোকটি সরকারী চাকরিজীবী তখন বুঝলাম হয় সে পাগল না হয় পতিবন্ধি কিন্তু কোনটায় নয়,সে একজন সুস্হ্য মানুষ। এটা তার মনের এক ধরনের নিচোতার কর্ম বলে অনেকে মতপ্রকাশ করেন তারা বলেন ঐ লোকটি পিচেট ধরনের মানুষ,তা না হলে একজন সরকারী চাকরিজীবী হয়ে কি করে এমন নিচোতার কর্ম করতে পারে। ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার পড় তার বিষয়ে জানতে পারলাম সে সরকারী চাকরিজিবী, আমিতো ধরেই নিয়েছিলাম লোকটি অভাবের তারনায় এমন কাজ করছে,যা ৭দিন না খেয়ে থাকা লোকও করবে না । যাই হোক এমন একজন মানুষ যদি সরকারী চাকরিজীবী হয়, তাহলে তার দ্বারা সমাজের বা রাষ্টের কতোটুকু উপকার হবে? বা যে সেক্টরে সে কর্মরত রয়েছে সেটারও বা মানুষ কল্যানে কতোটা উপকারে আসবে? পরিশেষে বলতে চাই ঐ ব্যাক্তি যে সংস্হায় কর্মরত রয়েছে সেই সংস্হার কর্তা ব্যাক্তিদের কিছুই কি করোনিয়ো নাই? তাদেরই একজন সহকর্মি সরকারী চাকরিজীবী হয়ে কি করে এমন নিচোতার কর্ম করতে পারে সেটা দেখার দায়িত্ব কি তাদের নাই? যদি থাকে তা হলে ঐ মানুষটিকে এমন নিচোতার কর্ম কান্ড থেকে বিরত রাখতে হবে,এবং আর যাতে কোনদিন এমন কাজ না করতে পারে তার জন্য ব্যাবস্হা গ্রহণ অতি জরুরি ভাবে করা প্রয়োজন বলে মনে করি। লোকটির নাম নাসিরুদ্দিন, বাড়ি চড়সাদিপুর থানা কুমারখালী জেলা কুষ্টিয়া। সে সাস্হ্য সংস্হায় কর্মরত। প্রথমে মনেকরেছিলাম লোকটি অভাবের তারনায় এমন কাজ করছে যা অন্যান্য টোকাইরা করে থাকে তারা শুধু টিন বা লোহা জাতিয়ো বা পানির বোতল জাতীয় জিনিসপত্র কুরায়, কিন্তু এই সরকারি চাকরিজীবী উদ্ সৃষ্ট খাবার সহ বিভিন্ন পলিথিন ছেঁরা কাগজপত্র কুরিয়ে ব্যাগ ভর্তি করছে দেখে লজ্জিত হলাম। এরকম কাজ যে ব্যাক্তি করতে পারে সেতো টোকাইদের থেকেও অধম,অথচ তখন তার গায়ে ছিলো কমপ্লিট কোট প্যান্ট।বিষয়টি জানার জন্য কুমারখালী সাস্হ্য কমপ্লেক্সের টি এইসও ডাঃ আকুল উদ্দিন কে মোবাইলে জানতে চাইলে তিনি বলেন হা নাসিরুদ্দিন সরকারি চাকরিজীবী ও সে সাস্হ্য কমপ্লেক্সের স্টাফ।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:



































শীর্ষ সংবাদ:
বেনাপোল সীমান্তে সচল পিস্তলসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রেফতার নির্মাণসামগ্রীর দাম চড়া, উন্নয়ন প্রকল্পে ধীরগতি কলম্বোতে কারফিউ জারি টিকে থাকার লড়াইয়ে ছক্কা হাকাতে পারবেন ইমরান খান? করোনায় আজও মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত কমেছে ‘ততক্ষণ খেলব যতক্ষণ না আমার চেয়ে ভালো কাউকে দেখব’ এবার ইয়েমেনে পাল্টা হামলা চালাল সৌদি জোট স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানি করেছে মোদি সরকার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়া নিয়ে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, এলাকা রণক্ষেত্র ইউক্রেনকে বিপুল ক্ষেপণাস্ত্র ও মেশিনগান দিয়েছে জার্মানি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৩ ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাবের ‘লাল-সবুজের পতাকা বিশ্বজুড়ে আনবে একতা‘-শীর্ষক সভা বঙ্গবন্ধু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর নওহাঁটায় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন । ভূরুঙ্গামারীতে ব্যাপরোয়া অটোরিকশা কেরে নিল শিশুর ফাহিম এর প্রাণ ভূরুঙ্গামারী কিশোর গ‍্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ৬ তম রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ৫২ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-২ বেনাপোল স্থলপথে স্টুডেন্ট ভিসায় বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমন নিষেধ গেরিলা যোদ্ধা অপূর্ব