কলিনদ্রেস-দোরিয়েলতনের নৈপুণ্যে জয়ে ফিরল আবাহনী


অথর
ক্রীড়া অঙ্গন সংবাদদাতা   বর্ণমালা টেলিভিশন
প্রকাশিত :১৫ জুলাই ২০২২, ১:০৪ অপরাহ্ণ | পঠিত : 121 বার
0
কলিনদ্রেস-দোরিয়েলতনের নৈপুণ্যে জয়ে ফিরল আবাহনী

প্রচণ্ড গরমে দুই দলের খেলার স্বাভাবিক গতি হলো ব্যহত। এর মধ্যেও আলো ছড়ালেন দেনিয়েল কলিনদ্রেস সোলেরা ও দোরিয়েলতন গোমেজ নাসিমেন্তো। ঈদের বিরতির পর শুরু হওয়া প্রিমিয়ার লিগে স্বাধীনতা সংঘকে সহজে হারাল আবাহনী লিমিটেড। কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ৪-১ গোলে জিতেছে আবাহনী। জোড়া গোল করেছেন দোরিয়েলতন; একটি করে গোল কলিনদ্রেস ও রাফায়েল অগাস্তো দি সিলভার। ১৯ ম্যাচে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে বসুন্ধরা কিংস। সমান ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা আবাহনীর শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা মূলত টিকে আছে কাগজে-কলমে। প্রথম লেগের ম্যাচে আবাহনীকে ১-১ ড্রয়ে রুখে দিয়েছিল স্বাধীনতা সংঘ। ফিরতি লেগে খুব একটা লড়াই করতে পারল না স্বাধীনতা সংঘ। আরেকটি হারের হতাশা নিয়ে তলানিতেই থাকল দলটি। লিগ টেবিলে দুই মেরুতে থাকা দুই দলের লড়াইয়ে আধিপত্য করে আবাহনী। পঞ্চদশ মিনিটে নাবীব নেওয়া জীবনের পাসে কলিনদ্রেসের শট ক্রসবারের উপর দিয়ে যায়। তিন মিনিট পর রাকিব হোসেনের জোরাল শট কর্নারের বিনিময়ে ফেরান গোলরক্ষক সারোয়ার জাহান। ২০তম মিনিটে এগিয়ে যায় আবাহনী। কিছুটা সৌভাগ্যের ছোঁয়াও ছিল এই গোলে। প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড় কিছুটা ভারসাম্য হারিয়ে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে তুলে দেন কলিনদ্রেসের পায়ে। বক্সের উপর থেকে নিখুঁত শটে জাল খুঁজে নেন কোস্টারিকার এই ফরোয়ার্ড। চার মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় সবশেষ ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিংয়ের কাছে হারা আকাশী-নীল জার্সিধারীরা। রাকিবের ক্রস ক্লিয়ার করতে পারেননি ইভান মারিচ; বল পেয়ে যান দোরিয়েলতন। প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান পায়ের কোনাকুণি শটে জাল খুঁজে নেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। বিরতির আগ মুহূর্তে হঠাৎ ছন্দ হারিয়ে গোল হজম করে বসে আবাহনী। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে জাহেদুল আলমের ক্রসে জাপানি মিডফিল্ডার ইয়োতা সুজুকির ছুটে এসে নেওয়া ডাইভিং হেডে পরাস্ত গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেল। ৪৮তম মিনিটে সতীর্থের ডিফেন্স চেরা পাস রাকিব নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার আগেই ছুটে এসে স্লাইড করে নিশ্চিত গোল সেভ করেন সারোয়ার। একটু পরে দোরিয়েলতনের পাস জীবনের প্লেসিং শটও ফেরান স্বাধীনতা গোলরক্ষক। ৫৬তম মিনিটে আর পারেননি সারোয়ার। জীবনের দারুণ লব ধরে গোলরক্ষকে একা পেয়ে যান দোরিয়েলতন। নিখুঁত শটে স্কোরলাইন ৩-১ করতে কেনো সমস্যাই হয়নি তার। লিগে এটি তার চতুর্দশ গোল। এরপর একটু একটু করে খেলার গতি কমতে থাকে। ৭৫তম মিনিটে স্বাধীনতা সংঘের বিশাল দাস সুযোগ পেয়েছিলেন, কিন্তু শট লক্ষ‍্যে রাখতে পারেননি তিনি। ৮১তম মিনিটে দুই ব্রাজিলিয়ানের দারুণ বোঝাপাড়ায় আবাহনীর জয় নিশ্চিত হয়ে যায় অনেকটাই। দোরিয়েলতনকে বল বাড়িয়ে বক্সে জায়গা করে নিয়েছিলেন রাফায়েল। দোরিয়েলতন দারুণ ব্যাক হিলে বল ফিরিয়ে দেন রাফায়েলকে, মাপা শটে লক্ষ্যভেদ করেন এই মিডফিল্ডার। এই হারে অবনমন এড়ানো আরও কঠিন হয়ে গেল স্বাধীনতা সংঘের জন্য। ১৯ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে আছে তারা। ১১ পয়েন্ট নিয়ে অবনমন অঞ্চলে থাকা আরেক দল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র।

No Comments