আজ ২২শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,ইংরেজি- ৬ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,
 
৬ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

এমাজউদ্দীন ১৩ বছর অনেক দুঃখ নিয়ে বেঁচে ছিলেন : মওদুদ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ ১৩ বছর অনেক দুঃখ নিয়ে বেঁচে ছিলেন। তিনি বলেন, তিনি একজন নিবেদিত জাতীয়তাবাদী বুদ্ধিজীবী ছিলেন। বাংলাদেশে অনেক বুদ্ধিজীবী আছেন, বুদ্ধিজীবীর অভাব নেই। কিন্তু তারমতো উঁচুমানের বুদ্ধিজীবী এখন খুব বিরল-নেই বললেই চলে।

শুক্রবার (২৪ জুলাই) বিকেলে সদ্যপ্রয়াত এমাজউদ্দীন আহমদের স্মরণে এক ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। মওদুদ আহমেদ বলেন, ‘এমাজউদ্দীন সাহেব গত ১৩ বছর মনের মধ্যে অনেক দুঃখ নিয়ে বেঁচে ছিলেন। গণতন্ত্রের প্রতি তার একটা কমিটমেন্ট ছিল। সেই গণতন্ত্রের জন্য জন্য মিলিটারি ইন্টারভেনশনের দরকার নেই, রাস্তায় কোনো ট্যাংক নামানোর দরকার নেই, কোনো গোলাবারুদের দরকার নেই, কোনো মার্শাল ‘ল জারি করার দরকার নেই। এখন ব্যালট বাক্স ব্যবহার, ভোটকে ব্যবহার করে, গণতন্ত্রকে ব্যবহার করে কর্তৃত্ববাদী সরকার, স্বৈরাচারী সরকার প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। এই যে গণতন্ত্রের মৃত্যু হচ্ছে ধীরে ধীরে, তিনি মনের মধ্যে এই দুঃখটা নিয়ে চলে গেছেন বলে আমি মনে করি।’

বিএনপির উদ্যোগে এই ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রয়াত এমাজউদ্দীন আহমদের কর্মময় জীবনের নানা দিক নিয়ে বক্তব্য রাখেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, জমিরউদ্দিন সরকার, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, অর্থনীতিবিদ মাহবুবউল্লাহ, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী, শত নাগরিক কমিটির সদস্যসচিব আবদুল হাই শিকদার।

গত ১৭ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদালয়ের সাবেক উপাচার্য ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর।

0 Reviews

Write a Review

Test Admin

Read Previous

প্রয়াত সাহারা খাতুনকে নিয়ে যা বললেন সোহেল তাজ

Read Next

অচল ঢাকা সচলের দাবিতে কাল বাসদের মানববন্ধন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *