আলেশা মার্ট নিয়ে সংবাদ সম্মেলন পাওনা টাকা পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাইলেন গ্রাহকরা


অথর
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সংবাদদাতা   বর্ণমালা টেলিভিশন
প্রকাশিত :২ আগস্ট ২০২২, ৬:০৬ অপরাহ্ণ | পঠিত : 110 বার
0
আলেশা মার্ট নিয়ে সংবাদ সম্মেলন পাওনা টাকা পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাইলেন গ্রাহকরা

বিতর্কিত ই-কমার্সভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আলেশা মার্টের চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম শিকদার ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা এবং তাঁদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন গ্রাহকরা। টাকা নিয়েও পণ্য না দেওয়া প্রতিষ্ঠানটির কাছ থেকে মূল অর্থ ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রী, বাণিজ্যমন্ত্রীসহ সংশ্নিষ্টদের হস্তক্ষেপও চেয়েছেন তাঁরা। শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করে এসব দাবি জানান ভুক্তভোগীরা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আলেশা মার্ট কাস্টমার অ্যাসোসিয়েশন এবং আলেশা মার্ট বিক্ষোভ ও আন্দোলন গ্রুপের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আলেশা মার্টের চেয়ারম্যান গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। তিনি টাকা দেওয়ার নাম করে বারবার সময় নিয়েছেন, যেন গ্রাহকদের দেওয়া চেকের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। এক বছর সময় পেয়েও গ্রাহকদের মিথ্যা আশ্বাস ছাড়া কিছুই দেননি। এমন পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ একান্ত জরুরি। গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেওয়ার ক্ষেত্রে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নিষ্ফ্ক্রিয় রয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, ২০২১ সালে আলেশা মার্ট উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। প্রতারণার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও সংশ্নিষ্টদের সমন্বয়ে একটি কমিটি করা দরকার। ওই কমিটি অর্থ উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে। প্রয়োজনে আলেশা মার্টের চেয়ারম্যানের সব সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে গ্রাহকদের টাকা ফেরত দিতে হবে। আলেশা মার্টে পণ্য অর্ডারকারী ৯০ শতাংশ গ্রাহকই ছাত্র ও সাধারণ মানুষ উল্লেখ করে আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, গত বছরের মে থেকে আগস্ট মাস পর্যন্ত এই ই-কমার্সে প্রায় ৩০০ কোটি টাকার অর্ডার করেন সাত হাজার গ্রাহক। তবে গ্রাহকদের পণ্য বা টাকা কোনোটাই ফেরত দেওয়া হয়নি। কিছু চেক দিলেও ব্যাংক হিসাবে টাকা না থাকায় তা প্রত্যাখ্যাত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Ok