অভিবাসী ইস্যুতে ট্রাম্পের নীতি ফেরালেন বাইডেন - বর্ণমালা টেলিভিশন

সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে চালু করা একটি অভিবাসন নীতি ফিরিয়ে আনছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এই নীতিতে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় প্রার্থীদের দাবি প্রক্রিয়াধীন থাকা অবস্থায় তাদের মেক্সিকোতে অপেক্ষা করতে হবে।

অভিবাসী গ্রুপগুলো বলছে ‘মেক্সিকোয় থাকো’ কর্মসূচি পুনর্বহাল করা হলে সীমান্ত শিবিরগুলোতে অপরাধ ও সহিংসতা বাড়বে। অথচ এই কর্মসূচিকে ‘অমানবিক’ আখ্যা দিয়ে বাতিল করেছিলেন জো বাইডেন। তবে আদালতের আদেশের পর এটি ফিরিয়ে আনছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকো সরকারের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে তারা ‘মেক্সিকোয় থাকো’ কর্মসূচি ফিরিয়ে আনবে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কর্মসূচিটি চালু করে। তখন এর নাম ছিলো অভিবাসী সুরক্ষা প্রোটোকল। এর আওতায় ৬০ হাজার আশ্রয় প্রার্থী আবেদনকারীকে মেক্সিকোতে পাঠিয়ে

দেওয়া হয়।

মাসের পর মাস ধরে মেক্সিকোয় অপেক্ষা করা আশ্রয়প্রার্থীরা প্রায়ই সহজেই সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের শিকারে পরিণত হয়। দাতব্য প্রতিষ্ঠান হিউমান রাইটস ফার্স্ট জানিয়েছে, মেক্সিকোয় ফিরে আসা অভিবাসীদের ওপর এক হাজার পাঁচশ’রও বেশি অপহরণ, ধর্ষণ, নির্যাতন এবং অন্যান্য নিপীড়নের ঘটনা নথিবদ্ধ রয়েছে।

দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই কর্মসূচিটি বাতিলের উদ্যোগ নেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। জুন মাসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলেজান্দ্রো মায়োরকাস নীতিটি বাতিল করে দেন। তবে আগস্টে কেন্দ্রীয় আদালতে ট্রাম্পের নিয়োগ করা বিচারক ম্যাথু ক্যাকসমারিক রায় দেন, বাতিলের প্রক্রিয়াটি যথাযথ হয়নি।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে বাইডেন প্রশাসন। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি জানান, প্রেসিডেন্ট তার অতীত মন্তব্যে অটল রয়েছেন। তবে আমরা আইন

অনুসরণেও বিশ্বাস করি’, বলেন তিনি।

সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে চালু করা একটি অভিবাসন নীতি ফিরিয়ে আনছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এই নীতিতে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় প্রার্থীদের দাবি প্রক্রিয়াধীন থাকা অবস্থায় তাদের মেক্সিকোতে অপেক্ষা করতে হবে।

অভিবাসী গ্রুপগুলো বলছে ‘মেক্সিকোয় থাকো’ কর্মসূচি পুনর্বহাল করা হলে সীমান্ত শিবিরগুলোতে অপরাধ ও সহিংসতা বাড়বে। অথচ এই কর্মসূচিকে ‘অমানবিক’ আখ্যা দিয়ে বাতিল করেছিলেন জো বাইডেন। তবে আদালতের আদেশের পর এটি ফিরিয়ে আনছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকো সরকারের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে তারা ‘মেক্সিকোয় থাকো’ কর্মসূচি ফিরিয়ে আনবে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কর্মসূচিটি চালু করে। তখন এর নাম ছিলো অভিবাসী সুরক্ষা প্রোটোকল। এর আওতায় ৬০ হাজার আশ্রয় প্রার্থী আবেদনকারীকে মেক্সিকোতে পাঠিয়ে

দেওয়া হয়।

মাসের পর মাস ধরে মেক্সিকোয় অপেক্ষা করা আশ্রয়প্রার্থীরা প্রায়ই সহজেই সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের শিকারে পরিণত হয়। দাতব্য প্রতিষ্ঠান হিউমান রাইটস ফার্স্ট জানিয়েছে, মেক্সিকোয় ফিরে আসা অভিবাসীদের ওপর এক হাজার পাঁচশ’রও বেশি অপহরণ, ধর্ষণ, নির্যাতন এবং অন্যান্য নিপীড়নের ঘটনা নথিবদ্ধ রয়েছে।

দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই কর্মসূচিটি বাতিলের উদ্যোগ নেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। জুন মাসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলেজান্দ্রো মায়োরকাস নীতিটি বাতিল করে দেন। তবে আগস্টে কেন্দ্রীয় আদালতে ট্রাম্পের নিয়োগ করা বিচারক ম্যাথু ক্যাকসমারিক রায় দেন, বাতিলের প্রক্রিয়াটি যথাযথ হয়নি।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে বাইডেন প্রশাসন। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি জানান, প্রেসিডেন্ট তার অতীত মন্তব্যে অটল রয়েছেন। তবে আমরা আইন

অনুসরণেও বিশ্বাস করি’, বলেন তিনি।

অভিবাসী ইস্যুতে ট্রাম্পের নীতি ফেরালেন বাইডেন

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৪ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৮:০০ 61 ভিউ
সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে চালু করা একটি অভিবাসন নীতি ফিরিয়ে আনছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এই নীতিতে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় প্রার্থীদের দাবি প্রক্রিয়াধীন থাকা অবস্থায় তাদের মেক্সিকোতে অপেক্ষা করতে হবে। অভিবাসী গ্রুপগুলো বলছে ‘মেক্সিকোয় থাকো’ কর্মসূচি পুনর্বহাল করা হলে সীমান্ত শিবিরগুলোতে অপরাধ ও সহিংসতা বাড়বে। অথচ এই কর্মসূচিকে ‘অমানবিক’ আখ্যা দিয়ে বাতিল করেছিলেন জো বাইডেন। তবে আদালতের আদেশের পর এটি ফিরিয়ে আনছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকো সরকারের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে তারা ‘মেক্সিকোয় থাকো’ কর্মসূচি ফিরিয়ে আনবে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কর্মসূচিটি চালু করে। তখন এর নাম ছিলো অভিবাসী সুরক্ষা প্রোটোকল। এর আওতায় ৬০ হাজার আশ্রয় প্রার্থী আবেদনকারীকে মেক্সিকোতে পাঠিয়ে

দেওয়া হয়। মাসের পর মাস ধরে মেক্সিকোয় অপেক্ষা করা আশ্রয়প্রার্থীরা প্রায়ই সহজেই সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের শিকারে পরিণত হয়। দাতব্য প্রতিষ্ঠান হিউমান রাইটস ফার্স্ট জানিয়েছে, মেক্সিকোয় ফিরে আসা অভিবাসীদের ওপর এক হাজার পাঁচশ’রও বেশি অপহরণ, ধর্ষণ, নির্যাতন এবং অন্যান্য নিপীড়নের ঘটনা নথিবদ্ধ রয়েছে। দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই কর্মসূচিটি বাতিলের উদ্যোগ নেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। জুন মাসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলেজান্দ্রো মায়োরকাস নীতিটি বাতিল করে দেন। তবে আগস্টে কেন্দ্রীয় আদালতে ট্রাম্পের নিয়োগ করা বিচারক ম্যাথু ক্যাকসমারিক রায় দেন, বাতিলের প্রক্রিয়াটি যথাযথ হয়নি। ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে বাইডেন প্রশাসন। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি জানান, প্রেসিডেন্ট তার অতীত মন্তব্যে অটল রয়েছেন। তবে আমরা আইন

অনুসরণেও বিশ্বাস করি’, বলেন তিনি।

দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


































শীর্ষ সংবাদ:
নিয়োগে দুর্নীতি: জীবন বীমার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ গাইবান্ধায় সেনাবাহিনীর ভূয়া ক্যাপ্টেন গ্রেফতার জগন্নাথপুরে সড়ক নির্মানের অভিযোগ এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে তারাকান্দায় অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ দেবহাটায় অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার আটক -১ রামগড়ে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাগমারায় ভেদুর মোড় হতে নরদাশ পর্যন্ত পাকা রাস্তার শুভ উদ্বোধন সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় মধুখালীতে তিন মাসে ৪৩ টি গরু চুরি গাইবান্ধায় বঙ্গবন্ধু জেলা ভলিবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন গাইবান্ধায় শীতবস্ত্র বিতরণ রাজশাহীতে পুত্রের হাতে পিতা খুন বাগমারায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার রামগড়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করেন ইউএনও ভাঃ উম্মে হাবিবা মজুমদার জগন্নাথপুরে জুয়ার আসরে পুলিশ দেখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ এক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সিপিবি নেতা মিহির ঘোষসহ ৬ জন কারাগারে পিআইও’র মানহানির মামলায় গাইবান্ধার ৪ সাংবাদিকসহ ৫ জনের জামিন গাইবান্ধায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনালী ব্যাংক লি. গোমস্তাপুর শাখায় শীতবস্ত্র বিতরণ