শিক্ষক মশিয়ার রহমানকে নির্যাতন এবং নৈতিক মূল্যবোধের অবক্ষয়

৩০ অক্টোবর ২০১৭, ৯:০৪ পূর্বাহ্ণ  -->| নিউজটি পড়া হয়েছে : 411 বার

শেফাতুল ইসলাম পিন্জু [ বার্তা বিভাগ ]
নীতি আদর্শ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত জীবনব্যবস্থার অভিব্যক্তিই নৈতিক মূল্যবোধ।জীবনে কোনো অন্যায় অনাচার থাকবে না,স্বার্থপরতা সংকীর্ণতা থেকে মুক্ত থাকবে জীবন।ঘুষ,দুর্নীতি,বঞ্চনা,শোষণ ও স্বার্থপরতা থেকে সমাজ মুক্ত থাকলেই নৈতিকতার আদর্শ প্রতিফলিত হয়।ধর্মীয় রীতিনীতি মেনে চলা,সত্য পথের অনুসারী হওয়া,অপরের কোনো ক্ষতিসাধন না করা,পরোপকারে মহান ব্রতে উদ্দীপ্ত হওয়া-এসব গুণ নিয়েই নৈতিক মূল্যবোধের বিকাশ।নৈতিক মুল্যবোধ ব্যক্তিজীবনকে উচ্চ মর্যাদায় অধিষ্ঠিত করে,তার আদর্শ সবার জন্য অনুসরণীয় হয়,সেই সঙ্গে সমাজ হয়ে ওঠে কলুষমুক্ত এবং বসবাসের আদর্শ স্থান। সত্যকে সত্য বলে চিনতে পারা.মিথ্যাকে মিথ্যা বলে ঘৃণা করা নৈতিক মূল্যবোধের ফসল।মূল্যবোধের চেতনা দিয়ে ন্যায়ের আদর্শকে সমুন্নত রাখা সম্ভব।শিক্ষাব্যবস্থার মূল লক্ষ্য নৈতিক মূল্যবোধ সংবলিত আদর্শ মানুষ সৃষ্টি করা।কিন্তু বর্তমান সমাজব্যবস্থায় নানা রকম দুর্নীতির অনুপ্রবেশ ঘটায় নৈতিক মূল্যবোধের অবক্ষয় দেখা দিয়েছে।জীবনের সর্বস্থরে এখন দুর্নীতির রাজত্ব।কোনো প্রকার অন্যায় আজ অন্যায় বলে বিবেচিত হয়না।নীতিভ্রষ্ট মানুষ আজকের দিনে নিজেকে অপরাধী বা হীন বলে বিবেচনা করে না।কোনো বিধি-নিষেধ আইনের তোয়াক্কা না করে স্বগৌরবে আপন মহিমায় অন্যায়,অমানবিক আচরণ ও অবিবেচক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।স্বপ্নের ডিজিটাল বাংলাদেশে প্রতিদিন খবরের কাগজেও গণমাধ্যমে জানা যায় অন্যায়,শোষণ ও অমানুষিক নির্যাতনের সংবাদ।দেশে এখন অন্যায়,শোষণ ও নির্যাতনের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে।এবার তার ব্যত্যয় ঘটেনি,এবার এই করূণ লোমহর্ষক নির্যাতনের স্বীকার,যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলাধীন গয়ড়া গ্রামের মো:আলতাফ হোসেনের ছেলে কাকুড়িয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো:মশিয়ার রহমান(৩২)।তাকে গাছে বেঁধে অমানুষিক নির্যাতনের স্টীম রোলার চালায়,একই গ্রামের সাবেক মেম্বার আতাউলের নেতৃত্বে শুকুর আলী,মজনু,রোস্তম,শামীম,শামনূর ও আলমগীর নরপিশাচরা।এমনকি নরপশুরা শিক্ষক মশিয়ার রহমানের স্ত্রী রুমা বেগম ও বৃদ্ধা মা মোমেনা বেগমকে ও মারপিট করে।নির্যাতনে জড়িত বাকীদের নাম উল্লেখ করে আসামী করা হয়েছে কিন্তু সাবেক মেম্বার আতাউল সেই অঞ্চলে এতো প্রভাবশালী যে নির্যাতনের মামলায় তাহার নাম অন্তর্ভুক্ত করা সাহস পাননি  মশিয়ার রহমান ও তাহার পরিবার।মশিয়ার রহমানের পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন,আতাউল মেম্বার তাদের কে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে নির্যাতন মামলা তুলে নেওয়ার জন্য।কবিতার ছন্দে লিখি বতর্মান বাংলার কিছু দৃশ্যপট।
এমন দেশ কোথায় খোঁজে পাবো মোরা?
যে দেশে মহান শিক্ষাগুরুকে,
গাছের বেঁধে মারপিট করে,
সমাজের কীটপতঙ্গ নামক নরপিশাচরা।
এমন দেশ কোথায় খোঁজে পাবো মোরা?
যে দেশের সোনার ছেলেরা,
শত শত অপরাধ করে
বুক ফুঁলিয়ে করে চলাফেরা।
তাদেরকে গ্রেফতার করনি,
আইন শৃঙ্খলা বাহিনীরা।
আজ কোথায় মানবতা?কেথায় নীতি নৈতিকতা?কোথায় মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষক সমাজের নেতৃবৃন্দ ?কোথায় পুলিশ প্রশাসন?কোথয় শিক্ষা প্রশাসন?কোথায় মানবাধিকার সংগঠনগুলো?কোথায় ঘাঁ ঢাঁকা দিলেন প্রাথমিক ওগণশিক্ষামন্ত্রী মহোদয় ?এই বর্বরোচিত শিক্ষক নির্যাতনের বিরুদ্ধে আপনাদের সক্রিয়তা খোঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা।শিক্ষকতার মহান ব্রত নিয়ে যিনি আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ গড়ার কারিগরের কাজ নিখুঁতভাবে পরিচালিত করছেন।সমাজের কিছু হায়েনার দ্বারা শিক্ষক মো:মশিয়ার রহমান লাঞ্চিত,শোষিত ও নির্যাতিত হলেন কিন্তু অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে তাদের কে সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান করা এখন ও সম্ভব হলো না,এতে করে অপরাধীরা অপরাধ করার প্রবণতা দিন দিন বাড়বে এবং শিক্ষকদের জীবন মারাত্মক হুমকির মুখে পড়বে।সমাজ নৈতিক মূল্যবোধের অধ:পতনে কলুষিত হয়ে সমাজে বিশৃঙ্খলা বৃদ্ধি পাবে।তাই অতিদ্রুত এই অপরাধীদের কে গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান করার জন্য সরকারের উর্ধ্বতন কতৃপক্ষে সুদৃষ্টি একান্তভাবে কাম্য।
লেখক:
মো:আজিজুর রহমান
সহকারী শিক্ষক(গণিত)
হায়দর পুর উচ্চ বিদ্যালয়
ছাতক,সুনামগঞ্জ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
ডোনেট স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আর্ত মানবতার সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। ডোনেট স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম, সরকার ও রাষ্ট্ররিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোন মন্তব্য না করার জন্য বর্নমালা টেলিভিশনের পাঠক ও সুভাকাঙ্খিদের বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোন ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।
পাঠকের মন্তব্য
Advertisement
সম্পাদকীয়

যাহা করিবার এখনই করিতে হইবে

গ্রিনহাউস গ্যাসের জন্য ক্রমশ উত্তপ্ত হইয়া উঠিতেছে এই ধরিত্রী—ইহার স্বপক্ষে প্রকাশ পাইতেছে নিত্যনূতন তথ্য। গ্রিনহাউস গ্যাসের মধ্যে সবচাইতে বেশি উচ্চারিত নামটি হইল কার্বন ডাই-অক্সাইড। সমপ্রতি... বিস্তারিত
জনমত জরিপ

সংবিধান মোতাবেক নীতিমালা প্রণয়ন করে সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি নিয়োগের দাবি জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। আপনি কি এ দাবির সঙ্গে একমত?

Loading ... Loading ...
Developed By : Donet IT