ঝালকাঠীতে শিক্ষার্থীদের সড়ক দুর্ঘটনার ঝুকিতে রেখেই পালিত হলো “জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস”

২২ অক্টোবর ২০১৭, ৭:৪০ অপরাহ্ণ  -->| নিউজটি পড়া হয়েছে : 277 বার

bornomalatv

রেজাউল ইসলাম ফরাজী ঝালকাঠী প্রতিনিধি: প্রথমবারের মতো সারা দেশের ন্যয় ঝালকাঠীতেও পালিত হলো জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস। মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রতিবছরের ২২ অক্টোবরকে ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ সরকারিভাবে পালনের ঘোষণা করে। “সাবধানে চালাব গাড়ি, নিরাপদে ফিরব বাড়ি” স্লোগানে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে সড়ককে নিরাপদ করার লক্ষ্যে আন্দোলন করে আসছিল। এবছরই প্রথমবারের মত দিনটি জাতীয়ভাবে পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে ঝালকাঠী জেলা শহরে সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান, পোস্টার-লিফলেট বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। কিন্তু যেখানে সড়ক দুর্ঘটনা আমাদের জীবনে ক্যানসারের মত মহাব্যাধিতে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিনই গাড়ির চাকায় পিষ্ট হচ্ছে অগণিত মানুষ। এঅবস্থায় শিক্ষার্থীদের ঝুকিতে রেখেই ৭৩৫.০৯ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের জেলায় পালিত হলো দিবসটি। বরিশাল থেকে জেলা শহর পর্যন্ত সড়কের পার্শে অবস্থিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমুহের সামনে স্প্রীড ব্রেকার থাকলেও জেলা সদর হতে রাজাপুর হয়ে ভান্ডারিয়া সড়ক এবং রাজাপুর হয়ে বেকুটিয়া সড়ক, রাজাপুর হয়ে কাঠালিয়া সড়ক এবং নৈকাঠী হয়ে ভান্ডারিয়া সড়ক, কাঠালিয়া আমুয়া সড়ক, কাঠালিয়া ভান্ডারিয়া সড়কের সংলগ্ন বিদ্যালয়গুলোর সামনের সড়কে নেই কোন স্প্রীড ব্রেকার বা জেব্রা ক্রসিং। সড়কের পার্শের বাজারগুলো সহ ইউনিয়ন পরিষদ, হাসপাতাল, ক্লিনিক, কলেজ, কমিউনিটি ক্লিনিক, মসজিদ, অফিস সমুহের অবস্থাও এর ব্যতিক্রম নয়। সড়কের দুই পাশে দৃষ্টি প্রতিবদ্ধকতা সৃষ্টিকারী গাছের ডালপালা, ঝোপঝাড়, দোকান ঘর তো রয়েছেই। জেলার ৪০০ কিলোমিটার পাকা সড়কের মধ্যে সব মিলিয়ে রয়েছে এরকম শতাধিক ভয়াবহ অরক্ষিত জায়গা। সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মিছিল যেখানে দীর্ঘ থেকে দীর্ঘই হচ্ছে। বছর শেষে যে হিসাব গিয়ে দাঁড়াচ্ছে কয়েক হাজারে। সড়ক দুর্ঘটনায় হারিয়ে যাচ্ছে অসংখ্য মূল্যবান প্রাণ সঙ্গে পিষ্ট হচ্ছে হাজারো স্বপ্ন, নিঃস্ব হচ্ছে বহু পরিবার। সমাজ-সংসারের বোঝা হয়ে পঙ্গুত্ব নিয়ে বেঁচে আছে অসহায় অনেক মানুষ। সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর সূত্রে জানা যায়, সড়ক দুর্ঘটনার দিক থেকে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে আমাদের অবস্থান ৭ম, আর পুরো পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৩। তবে জাতিসংঘ ২০১১ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত সড়ক দুর্ঘটনা ৫০ ভাগ কমিয়ে আনার জন্য যে দশক ঘোষণা করেছে তার সঙ্গে আমাদের সরকারের একাত্মতা প্রকাশ কাগজে পর্যন্তই থেকে যাবে! এটা কখনই জনগনের প্রত্যাশা হতে পারে না।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
ডোনেট স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আর্ত মানবতার সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। ডোনেট স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম, সরকার ও রাষ্ট্ররিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোন মন্তব্য না করার জন্য বর্নমালা টেলিভিশনের পাঠক ও সুভাকাঙ্খিদের বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোন ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।
পাঠকের মন্তব্য
Advertisement
সম্পাদকীয়

যাহা করিবার এখনই করিতে হইবে

গ্রিনহাউস গ্যাসের জন্য ক্রমশ উত্তপ্ত হইয়া উঠিতেছে এই ধরিত্রী—ইহার স্বপক্ষে প্রকাশ পাইতেছে নিত্যনূতন তথ্য। গ্রিনহাউস গ্যাসের মধ্যে সবচাইতে বেশি উচ্চারিত নামটি হইল কার্বন ডাই-অক্সাইড। সমপ্রতি... বিস্তারিত
জনমত জরিপ

সংবিধান মোতাবেক নীতিমালা প্রণয়ন করে সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি নিয়োগের দাবি জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। আপনি কি এ দাবির সঙ্গে একমত?

Loading ... Loading ...
Developed By : Donet IT