আরও ২০ পৃথিবীর খোঁজ পেল নাসা

২ নভেম্বর ২০১৭, ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ  -->| নিউজটি পড়া হয়েছে : 240 বার

শেফাতুল ইসলাম পিন্জু [ বার্তা বিভাগ ]

সৌরমণ্ডলের বাইরে প্রাণ খুঁজতে গিয়ে এবার ২০ গ্রহের সন্ধান পেল যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘নাসা’। এ গ্রহগুলো খুঁজে পেয়েছে ‘কেপলার’ মহাকাশযান।

পৃথিবী, মঙ্গল, বৃহস্পতির মতো আমাদের সৌরমণ্ডলের গ্রহগুলো ছাড়াও আরও অনেক অনেক গ্রহ রয়েছে অন্যান্য সৌরমণ্ডলে। এদেরই বলা হয় এক্সো-প্ল্যানেটস বা ভিনগ্রহ।


নাসা জানিয়েছে, এই ভিনগ্রহগুলোর সঙ্গে পৃথিবীর সাদৃশ্য রয়েছে। পৃথিবীর পাথরের মতো ওই গ্রহগুলোতে পাথর রয়েছে। এজন্য এদের বলা হচ্ছে, ‘রকি প্ল্যানেট’। আবহাওয়াতেও কিছু সাদৃশ্য রয়েছে।

এরা সবাই নিজেদের মতো পাক মারছে কোনো না কোনো নক্ষত্রের চার পাশে। নাসার বিজ্ঞানীদের মতে, পৃথিবীর সঙ্গে সবচেয়ে বেশি মিল রয়েছে ‘কেওআই-৭৯২৩.০১’ নামক গ্রহটির।

এটি পৃথিবীর ব্যাসের চেয়ে ৯৭ শতাংশ বেশি। এখানে বছর হয় ৩৯৫ দিনে। আমাদের নীলাভ গ্রহের চেয়ে অনেক বেশি ঠাণ্ডা এই গ্রহ।

মহাকাশ বিজ্ঞানীদের মতে, এই গ্রহ যে নক্ষত্রের চারপাশে চক্কর কাটছে তার তাপমাত্রা আমাদের সূর্যের চেয়ে কিছুটা কম। তাই এই গ্রহের তাপমাত্রাও পৃথিবীর চেয়ে কম। তবে এখানে তরল জলস্তর রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। প্রাণের উপযোগী পরিবেশও রয়েছে।

মহাকাশ বিজ্ঞানীদের মতে, সম্প্রতি কেপলার মিশনে সন্ধান মিলেছে ২১৯টি ভিনগ্রহের। আর সেই ২১৯টি ভিনগ্রহের মধ্যে অন্তত ২০টি একেবারেই আমাদের পৃথিবীর মতো পাথুরে। আর সেগুলো রয়েছে গোল্ডিলক্?স জোনে (কোনো নক্ষত্র থেকে তার গ্রহের দূরত্বকে বলে ‘গোল্ডিলক্?স জোন’)।

এ নিয়ে বিগত কয়েক বছরে মোট চার হাজার ৩৪টি ভিনগ্রহের সন্ধান পেল কেপলার স্পেস টেলিস্কোপ (কেএসটি)। যাদের মধ্যে দুই হাজার ৩৩৫টি গ্রহ সম্বন্ধে জানা সম্ভব হয়েছে।

কেপলার মিশনের অন্যতম প্রধান গবেষক জেফ কাফলিন কৌতুক করে বলেছেন, চাইলে মহাকাশযানে চড়ে পাড়ি জমাতে পারেন এই গ্রহগুলোতে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
ডোনেট স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আর্ত মানবতার সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। ডোনেট স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম, সরকার ও রাষ্ট্ররিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোন মন্তব্য না করার জন্য বর্নমালা টেলিভিশনের পাঠক ও সুভাকাঙ্খিদের বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোন ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।
পাঠকের মন্তব্য
Advertisement
সম্পাদকীয়

যাহা করিবার এখনই করিতে হইবে

গ্রিনহাউস গ্যাসের জন্য ক্রমশ উত্তপ্ত হইয়া উঠিতেছে এই ধরিত্রী—ইহার স্বপক্ষে প্রকাশ পাইতেছে নিত্যনূতন তথ্য। গ্রিনহাউস গ্যাসের মধ্যে সবচাইতে বেশি উচ্চারিত নামটি হইল কার্বন ডাই-অক্সাইড। সমপ্রতি... বিস্তারিত
জনমত জরিপ

সংবিধান মোতাবেক নীতিমালা প্রণয়ন করে সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি নিয়োগের দাবি জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। আপনি কি এ দাবির সঙ্গে একমত?

Loading ... Loading ...
Developed By : Donet IT